মেইন ম্যেনু

বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন, ভোগান্তিতে গ্রাহকরা

মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ কেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে অগ্নিকাণ্ডে ৫০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকেই বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে কুলাউড়া ও জুড়ী উপজেলার ৩০ হাজার গ্রাহক।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এতে আহত হয়েছেন ৩ কমর্চারী।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে কুলাউড়া বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ কেন্দ্রের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে শহর ফিডারের ব্রেকারটি বিকল হয়ে গেলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রেখে সেটি মেরামতের কাজ শুরু করেন নির্বাহী প্রকৌশলীসহ বিদ্যুৎ অফিসে কর্মরত কর্মচারীরা। মেরামত শেষে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য ব্রেকারটি চালু করতে গেলে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ন্ত্রণ কক্ষে আগুন ধরে যায় এবং নিয়ন্ত্রণ কক্ষের বাহিরে থাকা ট্রান্সফরমারটি পুড়ে যায়। ফলে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে কুলাউড়া ও জুড়ী উপজেলার ৩০ হাজার গ্রাহক।

এ সময় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে কাজে থাকা সাব অ্যাসিস্টেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মামুন মিয়া (৪৫), সহকারী হেলাল মিয়া (৩০), জাবেদ মিয়া (২২) আহত হন।

কুলাউড়া ফয়ার সার্ভিস কর্মীরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে এবং আহতদের উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

এদিকে বিক্ষুব্দ জনতা বিদ্যুৎ অফিসের সামনে অবস্থান নিলে অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা নিয়ন্ত্রণ কক্ষটি অরক্ষিত রেখে কৌশলে সেখান থেকে সটকে পড়েন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার পর থেকেই বিদ্যুৎ অফিসের মোবাইল ফোনটি বন্ধ রয়েছে। ফলে গ্রাহকরা মধ্যে উদ্বেগ ও শঙ্কায় রয়েছেন।

বিদ্যুৎ অফিস গিয়ে সহকারী প্রকৌশলী আনসারুল কবির বলেন, রাত সাড়ে ৯টার ব্রেকারটি চালু করতে গলে ট্রান্সফরমারসহ নিয়ন্ত্রণ কক্ষে আগুন ধরে যায়।

কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান উত্তম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি এবং আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি। অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ৫০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।