মেইন ম্যেনু

বিপদ থেকে রেহাই পেলেন রোনালদো

পরিবারের সঙ্গে প্রাক মৌসুম সময়টা বেশ ভালোই কাটাচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অবসরে যাপনে বান্ধবী ও পরিবারের অন্যন্য সদস্যদের নিয়ে স্পেনের ফরমেন্তেরার প্যারাডাইস দ্বীপে ঘুরে বেড়াচ্ছেন রিয়াল মাদ্রিদের এই পর্তুগীজ তারকা। কিন্তু সেখানেও রক্ষা নেই! সমুদ্রবিলাসের সময় রোনালদোর ইয়ট (প্রমোদতরী) থামিয়ে রীতিমত তল্লাশি চালিয়েছে স্পেনের সশস্ত্র শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। তবে তিনি বিপদ থেকে রেহাই পেলেন।

বান্ধবী জর্জিনা, মা দোলোরেস ছাড়াও পরিবারের অন্যান্য সদস্য এবং কাছের কয়েকজন বন্ধুদের নিয়ে অবকাশ যাপনে রয়েছেন রোনালদো। খাওয়ার জন্য দ্বীপের একটি রেস্টুরেন্টের দিকে যাচ্ছিলো রোনালদোর ইয়ট। এমন সময় বড় বোটে করে সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয় স্পেনের শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের একটি দল। শুল্ক বিভাগের সশস্ত্র কর্মকর্তারা রোনালদোর ইয়টকে ঘিরে ধরেন।

এরপর রোনালদোর ইয়ট তল্লাশি করেন শুল্ক কর্মকর্তা। অবকাশ যাপনে থাকাকালীন শুল্ক কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে অবশ্য বিস্মিত হয়েছেন সিআর সেভেন নিজেও। তবে এ নিয়ে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলেননি তিনি। পরিদর্শনের সময় তাদের সবকিছু ক্যামেরায় রেকর্ড করে নিয়ে যায় শুল্ক কর্মকর্তারা।

স্প্যানিশ গণমাধ্যম বলছে, এসময় রোনালদো খুব শান্ত ছিলেন। এসময় তিনি কর্মকর্তাদের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি বা কী ঘটছে তা সম্পর্কে কিছু জিজ্ঞাসাও করেননি। রোনালদোর আত্মীয়র মধ্যে একজন ওই সময় প্রশাসনিক কাজ সামলেছেন এবং কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টগুলো দেখিয়েছেন।

শুল্ক বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নিয়মিত পরিদর্শনের অংশ হিসেবেই রোনালদোর ইয়ট দেখা হয়েছে। মূলত অবকাশ যাপনে থাকা ইয়তগুলো তাদের নিয়োগকারী কোম্পানির কর ঠিকভাবে পরিশোধ করেছে কিনা, তা যাচাই করতেই শুল্ক কর্মকর্তারা সেখানে হাজির হয়েছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই