মেইন ম্যেনু

বিপিএলের উদ্বোধনী মঞ্চে এবার হৃতিক রোশন

প্রতীক্ষার প্রহর শেষ। এবার উপভোগের পালা। শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হয়ে গেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেটের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সাদিয়া ইসলাম মৌয়ের নৃত্য পরিবেশনার মধ্য দিয়ে পর্দা উঠেছে এ অনুষ্ঠানের। অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার কথা ছিল এরও ঘন্টাখানেক আগে। তবে অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনার কারণে বিলম্ব হয়।

2015_11_20_21_35_25_Xk2O9N79vkW1RnTzUyWgHKRB2JDLj6_original

মৌ’য়ের নৃত্যের পর মঞ্চে আসে দেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড দল এলআরবি। তিনি পরিবেশনা করেন তার জনপ্রিয় কিছু গান। এর মধ্যে ছিল ‘সেই তুমি, রাখে আল্লাহ মারে কে, ঘুমন্ত শহর, অভিলাষী আমি- ইত্যাদি। এরপর মঞ্চে উঠে চিরকুট ব্যান্ড। একে একে তারা পরিবেশনা করে তাদের জনপ্রিয় কিছু গান। এগুলোর মধ্যে ছিল যাদুর শহর, মরে যাব, কানামাছি ইত্যাদি। চিরকুট ব্যান্ডের অপূর্ব পরিবেশনা মুগ্ধ করে দর্শকদের। এরপর মঞ্চ কাঁপাতে আসেন ফোক সম্রাজ্ঞী মমতাজ।

মমতাজ বেশ ভালোমতোই দর্শকদের হৃদয় জয় করে নেন। একের পর এক গাইতে থাকেন তার হিট সব গানগুলো। শুরুতেই বিপিএল নিয়ে একটা গান করেন। এরপর আগে যদি জানতাম, খাইরুন লো, পাঙ্খা পাঙ্খা, নান্টু ঘটক, মরার কোকিলসহ প্রায় ৬টি গান পরিবেশনা করে দর্শক মাত করেন মমতাজ।

2015_11_20_20_41_21_yg5W2fyil2DDsGs4QeKpNfM1rjKaqZ_original

এরপর গান-বাজনার খানিক বিরতি। মঞ্চে উঠে আসেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি দেন সৌজন্য বক্তব্য। তারপর বিপিএল তৃতীয় আসরের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশের মাননীয় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এরপর মঞ্চে এক সঙ্গে দেখা যায় বিপিএলের ছয় দলের ছয় অধিনায়ককে। সাকিব না থাকায় রংপুরের হয়ে মঞ্চে ছিলেন সৌম্য সরকার।

এরপরই আলো ঝলমলে মঞ্চে উপস্থিত হন ভারতীয় জনপ্রিয় গায়ক কৃষ্ণকুমার কুনাথ (কে কে)। চলছে তার নিপুণ পরিবেশনা। একের পর এক তার গাওয়া জনপ্রিয় হিন্দি গানে মাত করেন সবাইকে। এরপরই আসল চমক। মঞ্চে উঠে আসেন বলিউড সুন্দরী ও মিস লংকান জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। দুটি হিন্দি ছবির গানে পারফরর্ম করেছেন লাস্যময়ী এই সুন্দরী। এরপর জ্যাকুলিন চলে যান পেছনে। শুরু হয় অল্প লেজার শো ও আতশবাজি।

2015_11_20_18_44_46_zQYVOMqDmO6vhdKzF2OQUq0StVSw9r_original

চিরকুট ব্যান্ডের সদস্যরা

এরপরই মঞ্চে আসেন হৃত্বিক রোশন। ধুম মাচালে গান দিয়ে শুরু করেন তার শো। তার উপস্থিতিতে গ্যালারীতে খুশির জোয়ার বয়ে যায়।

প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকার এই উদ্বোধনী কনসার্টের স্পনসর ডিবিএল গ্রুপ। বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি চট্টগ্রাম ভাইকিংসের মালিকানা কিনে অবশ্য বিপিএলে আগেই নাম লিখিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুক্রবার হলেও মাঠের লড়াই শুরু হবে ২২ নভেম্বর থেকে।