মেইন ম্যেনু

বিভিন্ন সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে জোহার ছবি

ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজার, লেখক ও প্রকাশক হত্যা, এটিএম বুথ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোকে প্রযুক্তিগত সহায়তা দিয়েছিলেন তথ্যপ্রযুক্তিবিদ তানভীর হাসান জোহা। নিখোঁজ হওয়ার আগে এমন তথ্য জানিয়েছিলেন তিনি। বিভিন্ন সময় সাইবার অপরাধ নিয়ে কাজ করতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে তিনি ছবিও তুলেছিলেন।

d4c03bf9f8bd37ef9f7d2daf12c42fb6-56eace2e9092c

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলামের পদোন্নতির পর শুভেচ্ছা জানিয়ে জোহার ফেসবুক স্টাটাস

যেগুলো তার ফেসবুক আইডিতেও দেওয়া রয়েছে। যদিও এখন পর্যন্ত জোহার প্রসঙ্গে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো কিছু বলেনি।

c34fa24a5a201685d2e10d00590c1a45-56eacd477b59b

র‌্যাব কার্যালয়ে জোহা

তানভীর হাসান জোহা আরও জানিয়েছিলেন, সর্বশেষ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে অর্থ চুরির ঘটনা তদন্তে প্রযুক্তিগত সহায়তার জন্য সাইবার বিশেষজ্ঞ হিসেবে তার নামও যুক্ত করা হয়েছিল। কয়েকটি বৈঠকে তিনি অংশ নিয়েছিলেন বলেও জানিয়েছিলেন। তবে তিনি কোন গোয়েন্দা সংস্থার হয়ে সেখানে অংশ নিয়েছিলেন, সেটা বলেননি।

22b3239666ac38046a0397564f2ac64a-56eacd920c026

র‌্যাবের করছেন জোহা

নিখোঁজ হওয়া ও বাংলাদেশ ব্যাংকের তদন্তে সহায়তা দিতে সাইবার বিশেষজ্ঞ হিসেবে তানভীর হাসান জোহা কাজ করেছিলেন কি না—জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের হয়ে কোনও বৈঠকে জোহাকে ডাকা হয়নি।

b91771328922be1b3049cbdba38604d8-56eacdec13f2f

ব্যাংক জালিয়াতের বিশেষ অনুষ্ঠানের ছবি

কোনও গোয়েন্দা সংস্থার হয়ে অংশ নিয়েছিলেন কি না—সেটা তার জানা নেই। নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমের মাধ্যমে জানতে পেরেছেন বলে জানান তিনি।

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেছেন, ‘তানভীর জোহার নিখোঁজ রহস্যের দ্রুত সমাধান হউক সে প্রত্যাশা এবং চেষ্টা আমাদের সকলের। তবে খবরে প্রকাশিত দুটি বিষয়ে আলোকপাত প্রয়োজন অনুভব করছি। তাভেল্লা হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনে তানভীরের সহায়তা নেওয়ার চেষ্টা করেছি এবং বেশ কিছু অর্থ ও তার পেছনে ব্যয় করা হয়েছে কিন্তু মিসগাইডিং কিছু তথ্য প্রদান ছাড়া কোনওরকম প্রযুক্তিগত সহায়তা তার কাছ থেকে পাইনি। আর এটিএম বুথ কেলেঙ্কারির অনেক আগে থেকেই আমরা তার প্রযুক্তিজ্ঞানের দৌড় দেখে তার ওপর আস্থা হারিয়েছি। এটিএম বুথের ঘটনা সংঘটনের আগে থেকেই সে অন্য এজেন্সির সঙ্গে কাজ করছে। ফলে এটিএম বুথ মামলার তদন্তের সঙ্গে তার কোনওরূপ সম্পর্ক ছিল না। শুরু থেকেই এ দুটি মামলার তদন্ত প্রক্রিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পৃক্ত বলে দায়িত্ব নিয়েই আমি এ বক্তব্য তুলে ধরছি।’বাংলা ট্রিবিউন