মেইন ম্যেনু

বিমানবন্দরে ব্রিটিশ নিরাপত্তা পরামর্শক নিয়োগ

অবশেষে যুক্তরাজ্যভিত্তিক রেডলাইন এভিয়েশন সিকিউরিটি লিমিটেডকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার উন্নয়নে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে রোববার সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এবং সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়।

প্রথমে ‘অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’ হজরত শাহজালাল (র.)আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার উন্নয়নে সরাসরি ক্রয়পদ্ধতিতে পরামর্শক নিয়োগের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘সরাসরি ক্রয়পদ্ধতিতে যুক্তরাজ্যভিত্তিক ‘রেডলাইন এভিয়েশন সিকিউরিটি লিমিটেড’-কে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ৭৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা।’

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘২০১৫ সালের ৩১ অক্টোবর মিশরে রাশিয়ার যাত্রীবাহী বিমান দুর্ঘটনার পর ৩৮টি বিমানবন্দরকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। বাংলাদেশ এর একটি। এখন পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আমাদের চুক্তি হবে। কাল থেকেই তারা কাজ শুরু করবে এবং ৩১ মার্চের মধ্যেই প্রাথমিক কাজ শেষ হবে।’

তিনি বলেন, ‘এর ফলে বিমানবন্দরের রফতানির ক্ষেত্রে যে সঙ্কট ছিল সেটা থাকবে না। পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের ২৯ কর্মী এখানে কাজ করবে এবং তারা এখানকার কর্মীদের প্রশিক্ষণও দেবে।’

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের লোকজনদের মধ্যে পলিসি লেভেলের কিছু কর্মকর্তা আসবেন তারা আমাদের বিভিন্ন পরামর্শ দেবেন। এ ছাড়া কিছু সংখ্যক সুপারভাইজার ও ১৪ জন স্কিলারও থাকবে। বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার সক্ষমতা বাড়াতে তারা আমাদের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেবে।