মেইন ম্যেনু

বিমানের কনসার্ট নিয়ে মুখ খুললেন সনু

সফর সঙ্গীদের অনুরোধে গান শুনিয়ে সমালোচিত হতে হয়েছে গায়ক সনু নিগামকে। সেই সঙ্গে যাত্রীদের অনুরোধ রক্ষা করতে গিয়ে চাকরি খুইয়েছে পাঁচ বিমান সেবিকা। বর্তমানে ভারতীয় পত্র-পত্রিকায় সবচেয়ে আলোচিত এই ইস্যু নিয়ে এবার মুখ খুললেন গায়ক।

সনু বলেন, এই ঘটনায় আমি অত্যন্ত বিরক্ত।এর আগেও বহুবার বিমানের ভিতরে ফ্যাশন শো হতে দেখেছি, এমনকি ছোট মাপের কনসার্টও হয়েছে বিমানে। প্রায়ই দেখেছি সুদীর্ঘ বিমান সফরে পাইলট এবং বিমানকর্মীরা নানা রকম জোকস বলেন। সেই সব যদি গ্রহণযোগ্য হয়, তাহলে আমার গান গাওয়ার জন্যে কেন পাঁচ জন বিমানসেবিকাকে বরখাস্ত করা হল? মানুষকে কিছু মুহূর্তের আনন্দ দেওয়ার জন্যে এমন শাস্তির কোনও যৌক্তিকতা নেই। ‘

তিনি আরও বলেন, ‘এটা খুবই দুঃখের এমন একটি পদক্ষেপের যৌক্তিকতা নিয়ে এদেশে প্রশাসনে করার কেউ নেই। এখন ভরসা শুধুমাত্র মিডিয়া। আমার মতে এই ধরনের ব্যবহার আদতে অসহিষ্ণুতারই প্রতীক’।

সফরসঙ্গী হিসেবে সনু নিগমকে পেয়ে বিমান কর্মীদের যাত্রীরা অনুরোধ করেছিলেন যাতে অন্তত একটি গান শোনার ব্যবস্থা করে দেন। যাত্রীদের অনুরোধে বিমান কর্মীরা সনুকে গান গাইতেও রাজি করিয়ে ফেলেন। বিমানের অ্যানাউন্সমেন্ট সিস্টেমে খালি গলায় খুশ মেজাজে গান শোনান সনু।

মাঝ আকাশে সনুর ‘কনসার্ট’-এ বরখাস্ত ৫ বিমানসেবিকা। কিন্তু অসামরিক বিমান নিয়ন্ত্রক বিষয়টাকে ভালো চোখে দেখেননি। ৪ জানুয়ারি যোধপুর থেকে মুম্বাইগামী জেট এয়ারওয়েজের বিমানে এমন নিয়ম বহির্ভুত কাজের জন্যে মাসুল গুনতে হয়েছে ৫ বিমানসেবিকাকে। উড়ানের যন্ত্রপাতির অপব্যবহারের অভিযোগে বরখাস্ত হয়েছেন এই পাঁচজন।