মেইন ম্যেনু

‘বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক’ কুকুরটি মারা গেছে

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়স্ক কুকুরটি মারা গেছে। তার বয়স হয়েছিল ৩০ বছর। তবে মানুষের সাথে বয়সের তুলনায় ম্যাগির বয়স ১৩৩ বছর। ধারণা করা হয়, ম্যাগিই বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুকুর। খবর বিবিসি। অস্ট্রেলিয়ার অঙ্গরাজ্য ভিক্টোরিয়ার দুধের খামারি ব্রায়ান ম্যাকলারেন এই কেল্পি জাতের কুকুরটির মালিক ছিলেন।

তিনি স্থানীয় এক সংবাদপত্রকে জানিয়েছেন, রোববার যে ঝুড়ির মধ্যে ম্যাগি শুয়ে থাকতো সেখানেই ঘুমের মধ্যে তার মৃত্যু হয়। তিনি বলেন, ‘ম্যাগির বয়স হয়েছিল ৩০ বছর। গত সপ্তাহেও সে সুস্থ ছিল। খামার জুড়ে দৌঁড়ে বেড়িয়েছে। কিন্তু গত ২ দিন আগে সে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। আমি দেখেই বুঝেছিলাম ও হয়তো আর বাঁচবে না। ম্যাগি চলে যাওয়ায় আমার খারাপ লেগেছে। তবে আমি সন্তুষ্ট, কারণ ও ধুকে ধুকে মরে নি।’ ম্যাগিকে সবচেয়ে বয়োবৃদ্ধ দাবি করা হলেও আনুষ্ঠানিকভাবে তা স্বীকৃত না।

ব্রায়ান ম্যাকলারেন জানান, ম্যাগির মালিকানার কাগজপত্র তিনি খুঁজে পাচ্ছে না। তবে তিনি বলছেন, তার ছোট ছেলে লিয়াম যখন চার বছরের তখন তিনি ম্যাগিকে বাড়িতে এনেছিলেন। লিয়ামের বয়স এখন ৩৪ বছর। তবে আনুষ্ঠািনকভাবে সবচেয়ে বৃদ্ধ কুকুরটিও ছিল অস্ট্রেলিয়ায়। তার নাম ছিল ব্লুই। সে ১৯৩৯ সালে মারা যায়। তার তখন ছিল ২৯ বছর। উল্লেখ্য, কুকুর সাধারণত ৮ থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকে। ২০ বছরের বেশি সময় ধরে বেঁচে থাকা কুকুরের নিশ্চিত রেকর্ড পাওয়া খুবই বিরল।