মেইন ম্যেনু

বিশ্বের সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ দেশ আইসল্যান্ড, বিপজ্জনক সিরিয়া

বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশগুলির তালিকায় শীর্ষ স্থানে উঠে এসেছে সিরিয়া। অথচ মাত্র আট বছর আগে বিশ্ব শান্তি সূচকে থাকা ১৬২ ‍টি দেশের মধ্যে এর অবস্থান ছিল ৮৮ তম। ২০০৮ সালের পর দেশটিতে গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর এটি বিপজ্জনক দেশগুলির তালিকায় উঠে আসে। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিভিত্তিক আর্ন্তজাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইনিস্টিটিউট ফর ইকোনোমিকস অ্যান্ড পিস প্রকাশিত গ্লোবাল পিস ইনডেক্সে (জিপিআই) তথ্য উঠে এসেছে।

পৃথক ২৩টি পরিসংখ্যানের ওপর ভিত্তি করে ইকোনোমিকস অ্যান্ড পিস ইনস্টিটিউট এ সূচক তৈরি করেছে। পরিসংখ্যানগুলোর মধ্যে হত্যাকাণ্ডের মাত্রা, অপরাধ প্রবণতা, সন্ত্রাসবাদ ও সামরিক ব্যয়ের তথ্যও রয়েছে। বছরভিত্তিক জিপিআই সূচকের এটি নবম সংস্করণ।

৩জিপিআই স্কোরের ক্ষেত্রে যে দেশ যত কম স্কোর করেছে, সেই দেশ তত শান্তিপূর্ণ। বিপরীতভাবে যে দেশের স্কোর সবচেয়ে বেশি, সেই দেশ সবচেয়ে বেশি সহিংসতাপূর্ণ। চলতি বছরের সংস্করণে বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে সিরিয়ার স্কোর সবচেয়ে বেশি আর ক্ষুদ্র নর্ডিক দেশ আইসল্যান্ডের স্কোর সবচেয়ে কম । সে হিসেবে আইসল্যান্ড সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

সামাজিক স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তার উচ্চমান, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে কোনো বিবাদে না জড়ানো ও নিম্ন সামরিক ব্যয় দেশটিকে এ অবস্থানে প্রতিষ্ঠিত করেছে। আইসল্যান্ড বিশ্বের সেই বিরল দেশগুলোর একটি পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য হওয়ার পরও যার সদা প্রস্তুত কোনো সেনাবাহিনী নেই। কোস্ট গার্ড ও দেশের জলভাগ ও আকাশপথ পাহারা দেওয়ার জন্য কয়েকটি জাহাজ- এই হল দেশটির সামরিক বাহিনী। দেশটি তার বার্ষিক জিডিপির মাত্র শূণ্য দশমিক ১৩ শতাংশ সামরিক বাহিনীর পেছনে ব্যয় করে ।

আইসল্যান্ডের পরই দ্বিতীয় শান্তিপূর্ণ দেশ ডেনমার্ক । শীর্ষ দশের মধ্যে এর পরের অবস্থানে রয়েছে যথাক্রমে অস্ট্রিয়া, নিউজিল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, কানাডা, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও চেক রিপাবলিক।

অপরদিকে, বিপজ্জনক দেশগুলির তালিকায় শীর্ষ দশের মধ্যে রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের ও আফ্রিকার কয়েকটি দেশ। সিরিয়ার পর দ্বিতীয় বিপজ্জনক দেশ হিসেবে উঠে এসেছে ইরাকের নাম। এর পরে রয়েছে যথাক্রমে আফগানিস্তান, দক্ষিণ সুদান, মধ্য আফ্রিকা রিপাবলিক, সোমালিয়া, সুদান, ডেমক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, পাকিস্তান, উত্তর কোরিয়া, রাশিয়া, নাইজেরিয়া ।

তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৮৪তম। প্রতিবেশী ভারত রয়েছে ১৪৩তম অবস্থানে।

তবে বিশ্বের নেতৃস্থানীয় ও আলোচিত দেশগুলির কোনটিই কিন্তু শান্তিপূর্ণ দেশগুলির তালিকার ৩০ এর মধ্যে জায়গা করতে পারেনি। তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র ৯৪তম অবস্থানে, যুক্তরাজ্য ৩৯ তম, চীন ১২৪তম , ফ্রান্স ৪৫তম, জার্মানি ১৬তম, ইতালি ৩৬তম , ব্রাজিল ১০৩তম, সৌদি আরব ৯৫তম, ইরান ১৩৮তম ও ইসরায়েল ১৪৮তম অবস্থানে রয়েছে।