মেইন ম্যেনু

বিশ্ব বিবেক নাড়িয়ে দিল যে ছবি!

বিয়ের পর ৬২ বছর এক সঙ্গে সংসার করেছেন কানাডার ওলফ্রাম এবং অনিতা গতসচাল্ক দম্পতি। দুই জনের বয়সই এখন আশির ঘরে। ছেলে-মেয়েরা এখন যে যার সংসার নিয়ে ব্যস্ত। বৃদ্ধ বাবা-মাকে দেখার মতো সময় কোথায় তাদের? সিদ্ধান্ত হয়, দুই জনকেই পাঠিয়ে দেওয়া হবে নার্সিং হোমে।

বৃদ্ধাশ্রমে পাঠানোর এই সিদ্ধান্তে প্রবীণ এই দম্পতি যতটা না কষ্ট পেয়েছিলেন তার চেয়ে অনেক বেশি কষ্ট পেয়েছেন যখন জানতে পেরেছেন তাদের জন্য ঠিক করা হয়েছে আলাদা নার্সি হোম। বৃদ্ধাশ্রমে যাওয়ার আগে বিদায় মুহূর্তে আবেগে কেঁদে ফেলেন দুই জনই। সুখে-দুঃখে এতদিন একে অপরকে পাশে পেলেও এখন কাটাতে হবে জীবনের দুর্বিষহ দিনগুলো।

তাদের সেই কান্নার একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তিন হাজারের বেশি বার শেয়ার হয়েছে ছবিটা। কয়েক লক্ষ বার দেখা হয়েছে তাদের সেই বিচ্ছেদের ছবি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় তোলা সেই ছবি-ই যেন নাড়া দিয়েছে বিশ্ব বিবেককে। প্রবীণ এই দম্পতির জন্য আবারো একই ছাদের নীচে বসবাস করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। দুই জনকে এক জায়গায় নিয়ে আসার পর আবারো তারা কাঁদেন, তবে এবার সেই কান্না ঝরেছে আনন্দ অশ্রু হয়ে।-এনডিটিভি