মেইন ম্যেনু

বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতা থেকে বাদ হলো বিকিনি রাউন্ড

সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অনেকগুলো ধাপ পার হয়ে তারপর বিজয়ী নির্বাচিত হয়। সেই ধাপগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে বিকিনি রাউন্ড। যেখানে মডেলদেরকে বিকিনি বা সুইমিং গাউন পরে হেঁটে শরীরের সৌন্দর্য উপস্থাপন করতে হয়। মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগীতা থেকে সেই বিকিনি রাউন্ডই তুলে ফেলা হয়েছে। সামনের বছর থেকে প্রতিযোগিতায় থাকবে না কোন সুইমিং গাউন রাউন্ড। এমনটাই আদেশ দেয়া হয়েছে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায়। সংস্থার চেয়ারম্যান জুলিয়া মোরলে একটি বিদেশি ম্যাগাজিনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন এই তথ্য।

১৯৫১ থেকে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতা শুরু হওয়ার পর থেকে এতদিন পর্যন্ত কখনও বাদ দেওয়া হয়নি বিকিনি রাউন্ড। তা হলে হঠাৎ কী হল যে এরকম সিদ্ধান্ত নিতে হল?

জুলিয়ার বক্তব্য, তিনি এভাবে মেয়েদের অর্ধনগ্ন অবস্থায় বিকিনি পরে দেখতে মোটেও পছন্দ করেন না। আর এই পুরো রাউন্ডটাই অর্থহীন। এতে প্রতিযোগী বা বিচারক কারওরই কোনও লাভ হয় না। তাই রাউন্ডটি তুলে দেওয়াই বাঞ্ছনীয়। আর কারো শরীর এভাবে মাপার থেকে তার বক্তব্য শুনে মানসিকতা বিচারটা আরও বেশি জরুরি বলে মনে করেছেন কর্মকর্তারা। তাই মিলিতভাবেই এই সিদ্ধান্ত।

প্রথমে ঠিক করা হয়েছিল স্যুইমস্যুট রাউন্ডটা টিভিতে দেখানো হবে না। হোটেলের পুলসাইডে কোনও রকমে সেরে সেখানেই বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে। কিন্ত শেষ পর্যন্ত রাউন্ডটাই তুলে দেওয়া হল প্রতিযোগিতা থেকে৷ বরং বুদ্ধিমত্তা আর আই কিউ-এর উপর বেশি জোর দেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন কর্মকর্তারা।

এর আগে ২০১৩ সালে ইন্দোনেশিয়ার বালিতে সুন্দরী প্রতিযোগিতার এক ঘটনায়েএমন নিয়ম জারি হয়েছিলো যে, কেউ চাইলে বিকিনি না পরে আরো বেশ কাপড় পরেও নিজেকেিউপস্থাপন করতে পারবেন। কিন্তু এবার একেবারেই নিষিদ্ধ হলো বিকিনি রাউন্ড।



(পরের সংবাদ) »