মেইন ম্যেনু

বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়ীতে প্রেমিকার অনশন

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি॥ কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের জুম্মাপাড়ায় গাড়াগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়ীতে আমরণ অনশন পালন করছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, গাড়াগ্রাম পুরাতন জুম্মাপাড়ার আবু হানিফের মেয়ে রাণী আক্তার (১৫) পার্শ্ববর্তী আব্দুল মান্নানের ছেলে মাহ্ফুজার রহমান (২০) সাথে দীর্ঘদিন যাবত প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে মাহফুজার রহমান মেয়েকে ফুসলিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করলেও মেয়েটি অনিচ্ছায় তা থেকে বিরত থাকতে বলে। কিন্তু শনিবার রাতে প্রেমিকা রাণী আক্তারকে মোবাইল ফোনে বাড়ীর বাহিরে ডেকে নেয় প্রেমিক মাহফুজার রহমান। পরে রানীর বাবা আবু হানিফ ও মা মেহেনারা রাণীকে বাড়ীর বাহিরে দেখে রাণীকে বাড়ীতে ডেকে নিয়ে আসে। কিছুক্ষন পর রানীর বাবা ও মা তাকে বাড়ীতে রেখে তার নানীর বাড়ীতে রওয়ানা হয়। বৃষ্টির কারণে রানীর বাবা মা কিছুদুর থেকে বাড়ীতে ফিরে আসলে রান্না ঘরের পিছনে অসামাজিক কাজের চেষ্টাকালে আবু হানিফের হাতে ধরা পরে। তারপর ঘটনা ধামাচাপা দিতে মাহফুজার রহমান মেয়েটিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার বাড়ীতে নিয়ে আসে।

এমতাবস্থায় ছেলের বাবা মা মেয়েটিকে বাড়ী থেকে বের করে দেয়ার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে মেয়েটিকে মারধর করে ছেলেকে বাড়ীর বাহিরে পাঠিয়ে দেয়। তারপর বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে উপজেলা প্রশাসন’র কাছে মেয়েটির নাবালিকার অজুহাতে তার বাড়ী থেকে মেয়েকে সরানোর জন্য নানা কৌশল খাটানোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। ওই ইউনিয়নের একজন ওয়ার্ড সদস্য জানান,মেয়েটির বাবা গরীব হওয়ায় মেয়েটিকে মেনে নিতে পারছেনা ছেলের পরিবার। কিন্তু ছেলের বাবা প্রভাবশালী হওয়ায় বিভিন্ন প্রভাবশালী নেতাদেরকে টাকা দিয়ে ম্যানেজ করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

এ বিষয়ে গাড়াগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান বিপ্লব কুমারের সাথে হলে তিনি বিষয়টি জানেন না বলে এ প্রতিবেদককে জানান।