মেইন ম্যেনু

‘বিয়ের দিন আমি শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হয়েছি’

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের এক নারী রাজনৈতিক জানিয়েছেন তার বিয়ের দিন তিনি ও অতিথিরা বিরোধী বামপন্থি রাজনৈতিক সমর্থকদের দ্বারা শারীরিক লাঞ্ছনার শিকার হয়েছেন। ওই ব্রাজিলের রাজনীতির গ্লামার কন্যার পরিবার বর্তমান প্রেসিডেন্ট মিশেল টেমের সমর্থক।

মারিয়া ভিক্টোরিয়া ব্যারোস নামের ২৫ বছর বয়সী এই তরুণী দেশটির পেরানা রাজ্যের অ্যাসেম্বিলি সদস্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মেয়ে।

বিবিসির সংবাদে বলা হয়, শুক্রবার সন্ধ্যায় মারিয়ার বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় রাজ্যের রাজাধানী কুরিটিবার এক চার্সে। বিলাসবহুল এই আয়োজনের সংবাদে চার্সের বাইরে শতশত বিরোধী সমর্থক জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। তারা এক পর্যায়ে বিয়েতে আসা অতিথিদের লক্ষ্য করে ডিম ছোঁড়ে, অকথ্যভাষায় গালি দিয়ে স্লোগান দেয়। শেষ পর্যন্ত মারিয়াকে বহন করা গাড়ি রায়োট পুলিশের পহারায় চার্স থেকে বেরিয়ে যায়।

বিলাসী এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারা- যার মধ্যে মারিয়ার বাবা রিচার্ড ব্যারোস, মা রাজ্যের ডেপুটি গভর্নর কিডা বোর্গেটি। এ ছাড়াও রাজধানী ব্রাসিলা থেকেও কেন্দ্রীয় সরকারের প্রায় ৩০ জন সদস্য এসেছিলেন।

বিক্ষোভের মুহূর্তের ভিডিওটি ভিডিও শেয়ারিং মাধ্যম ইউটিউবে ছাড়া হয়েছে; যেখানে দেখা যাচ্ছে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে নিরাপত্তাকর্মীরা। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীদের ছোঁড়া পচা ডিম ছাতা দিয়ে ঠেকানো চেষ্টা করা করছে নিরাপত্তাবাহিনী।

উল্লেখ্য, সাবেক প্রেসিডেন্ট দিলেমা রৌসফ সম্প্রতি অভিশংসন হওয়ার পর ক্ষমতায় বসেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট মিশেল টেমের। আর তার সমর্থনই করে মারিয়া ও তার বাবা-মা। সূত্র: বিবিসি।






মন্তব্য চালু নেই