মেইন ম্যেনু

বিয়ের রাতেই ৪০ বছরের বরের হাতে ৮ বছরের স্ত্রীর মৃত্যু

বিশ্বজুড়েই ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালানো হচ্ছে বাল্যবিবাহ রোধে। আর এমন প্রচারণা যখন বেশ জোরদার, তখনই ঘটল এক মর্মান্তিক ঘটনা। যে ঘটনায় পুরো বিশ্ব হতভম্ব!

যখন ৪০ বছরের স্বামীর হাতে বিয়ের রাতেই মৃত্যু হয় ৮ বছরের বধূর, তখন কি আর হতভম্ব না হয়ে থাকা যায়? এই পৈশাচিক ঘটনাটি ঘটেছে আরব দেশ ইয়েমেনে। ঘটনায় অভি‌যুক্ত ‘স্বামী’-কে গ্রেফতারির দাবি তুলেছে মানবাধিকার সংগঠনগুলি।

সৌদি সীমান্ত ঘেঁষা উত্তর-পশ্চিম ইয়েমেনের হার্ধ শহরের এই ঘটনায় মধ্যপ্রাচ্যে বাল্যবিবাহের নৃশংস ছবি আবার ভেসে উঠল এ ঘটনাটির মাধ্যমে। রাষ্ট্রসংঘের অনুমান অনু‌যায়ী ২০১১ থেকে ২০২০-র মধ্যে ১৪ কোটি বাল্যবিবাহ হবে বিশ্বজুড়ে। এর মধ্যে ৫ কোটির বয়স ১৫-র ও কম।

রিপোর্ট বলছে, ইয়েমেনে ২৫ শতাংশের বেশি মেয়ের ১৫ বছর বয়সের আগেই বিয়ে হয়। ফলে তারা শুধু স্বাস্থ্য ও শিক্ষার অধিকার থেকেই বঞ্চিত হয় না, চরম শারীরিক ও মানসিক নি‌র্যাতনের শিকার হতে হয় তাদের। সমস্যা হল মেয়েদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স নিয়ে এখনো একমত নয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। ফলে এই সব শিশুদের কান্না পৌঁছয় না রাষ্ট্রনেতাদের কানে।

ইয়েমেনে বাল্যবিবাহ খুব সাধারণ ঘটনা। ২০০৯ সালে এক আইন পাশ করে মেয়েদের বিয়ের বয়স ন্যূনতম ১৭ বছর করা হয়। তবে সেই আইনি ইসলামবিরোধী বলে খারিজ করে দেন ধর্মগুরুরা।