মেইন ম্যেনু

বিয়ে করে হারিয়ে গেলেন যেসব নায়িকা

একসময় ছোট ও বড়পর্দা কাঁপিয়েছেন অভিনয় আর রূপের মাধুর্যতা দিয়ে। তাদের দর্শকপ্রিয়তাও ছিলো আকাশচুম্বী। যার কারণে পেয়েছিলেন তারকা খ্যাতি। কিন্তু এরপরও তারা নেই ছোট কিংবা বড়পর্দাতে। হারিয়ে গেছেন তারা। বিয়ের পরপরই তারা মনোনিবেশ করছেন স্বামী-সন্তান-সংসারে। ফলে তারা নেই মিডিয়াতে।

শাবনূর : বাংলা সিনেমায় দীর্ঘ সময় একক কর্তৃত্ব করেছেন এই নায়িকা। তবে, বিয়ের অনেক আগে থেকেই অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন শাবনূর। সর্বশেষ ২০১৩ সালে মুক্তি পায় শাবনূর অভিনীত ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা। এরপর নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতেও দেখা যায় নি এ নায়িকাকে।আর ছবি মুক্তির কয়েকমাস পরেই ডিসেম্বরের শেষে সন্তান হওয়ার পর থেকে প্রায় দু বছর ছিলেন অভিনয়ের বাইরে।

এদিকে ২০১৫ সালের ১ আগস্ট ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেও ছবিটি ছিলো তিন চার বছর আগের পুরনো ছবি। যার অসমাপ্ত কাজ শেষ করতেই ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি।আবারো ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে হৈ চৈ ফেললেও তার ঘনিষ্ঠজনরা বলেছেন এটা তার দায়বদ্ধতার জায়গা থেকেই কাজটি করেছেন।যদি তাই হয় তাহলে প্রায় তিন বছর ধরেই নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হননি শাবনূর। ভবিষ্যতেও ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। ফলে এক হিসেবে হারানো তারকাদের খাতাতেই নাম লিখিয়েছেন এই গুণী অভিনেত্রী।

পূর্ণিমা : অভিনয় থেকে বিদায় নিয়ে স্বামী সংসার নিয়ে এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন জনপ্রিয় নায়িকা পূর্ণিমা। গত বছর এ অভিনেত্রী মা হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেন। চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যাওয়ার পরও বেশ কিছুদিন শোনা গিয়েছিলো আবারো অভিনয়ে ফিরবেন তিনি।কিন্তু না, ফিরছেন ফিরছেন বলেও তিনি আর আসছেন না রূপালি পর্দায়। এদিকে সন্তান আরশিয়া উমায়জার বয়সও এক বছর পার হয়ে গেল। ফলে পূর্ণিমার ফেরা অনিশ্চয়তাতেই ঘেরা।

মৃদুলা আহমেদ রেসী : ২০১২ সালের ২২ জুন চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী পান্থ শাহরিয়ারের সঙ্গে বিবাহ বন্দনে আবদ্ধ হন রেসি। এরপর আস্তে আস্তে চলচ্চিত্র থেকে হারিয়ে যেতে থাকে রেসির নাম।আর এক বছরের মাথাতেই সংসারে আসে এক ফুটফুটে সন্তান।মেয়েটা একটু বড় হলে অভিনয়ে ফেরার কথা বললেও সে সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।যদিও গত বছর জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘অনেক দামে কেনা’ ছবিতে ডিপজলের বিপরীতে অভিনয় করার কথা ছিলো তার।তবে শেষ পর্যন্ত আর ফেরেননি তিনি।

শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি : অভিনেতা হিল্লোলকে ভালোবেসে বিয়ে করেন শাবস্তী দত্ত তিনি। এরপর হিল্লোলের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেলে কন্যা সন্তানকে নিয়ে একাকী জীবনে অভ্যস্ত হয়ে পড়েন এই অভিনেত্রী। আর এই সময়েই আস্তে আস্তে মিডিয়া থেকে দূরে সরে যান তিনি। ফিরবেন ফিরবেন বলেও তিন্নির আসার আপাতত কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।

আফসান আরা বিন্দু : গত বছর বিয়ে করেন লাক্স তারকা আফসান আরা বিন্দু। বিয়ের আগে থেকেই কাজ কমিয়ে দিয়েছিলেন এই তারকা।আর বিয়ে করার পর নতুন কোনো নাটকে দেখা যায় নি এ তারকাকে।অদূর ভবিষ্যতে বিন্দুকে আবার অভিনয়ে দেখা যাবে কি না তা সময়ই বলে দিবে।

মোজেজা আশরাফ মোনালিসা : মোজেজা আশরাফ মোনালিসা। তিনিও বিয়ে করে সংসার গড়েছিলেন এক আমেরিকা প্রবাসীর সঙ্গে। তারপর গত বছরের শেষ দিকে হঠাৎ করে তিনি নিজেও পাড়ি জমান আমেরিকায়। স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্সের ব্যাপারটি মীমাংসা করতেই তিনি গিয়েছিলেন। কিন্তু দেড় বছর হয়ে গেলেও এখনো ফেরার নাম নেই তার। জানা গেছে কখনো চ্যানেলের চাকরী কখনো পার্লারে চাকরী করে জীবিকা নির্বাহ করছেন এই তারকা।

সারিকা সাবরিন : আগমনের পর দ্রুত জনপ্রিয়তা অর্জন। আর জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করেই নিজের ব্যক্তিগত বিতর্কের কারণে মিডিয়া থেকে ছিটকে পড়েন এই অভিনেত্রী। যতটা অভিনয়ে ফেরার সম্ভাবনা ছিলো তাও শেষ হয়ে যায় গত ১২ আগস্ট যখন ব্যবসায়ী মাহিম করিমকে বিয়ে করেন। আর মাস দুয়েক আগে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে এখন পুরাপুরিই মিডিয়া থেকে দূরে রয়েছেন এই অভিনেত্রী।