মেইন ম্যেনু

বিয়ে বাড়িতে যুবলীগের কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে বিয়ে বাড়িতে বিরোধের জের আহসান মাহমুদ (৩২) নামে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।সে উক্ত উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের কাশই গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। বুধবার রাত সাড়ে দশটায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়,জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের কাশই গ্রামে পূর্ব শত্রুতার বিরোধের জের ধরে স্থানীয় ওয়ার্ড যুবলীগ সাধারন সম্পাদক আহসান হাবিবের পক্ষের মনা নামের এক যুবক পাশ্ববর্তী এলাকায় গেলে বুধবার সন্ধ্যায় তার প্রতিপক্ষ যুবলীগের সমর্থক মোর্শেদ, আনোয়ার, আরিফগংরা তাকে মারধোর করে। খবর পেয়ে আহসান হাবিব সেখানে গিয়ে প্রতিবাদ করলে দু’পক্ষের মাঝে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

রাত ১১ টায় স্থানীয়রা দুপক্ষের মাঝে বিষয়টির সমঝোতার চেষ্টা কালে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহসান মাহমুদ গুরুতর জখম হয়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১১ টায় লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স’এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ এসে অভিযান চালিয়ে রাতেই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে ৩ জন সহ গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ৫ জনকে আটক করেছে।

নিহত আহসান হাবিব কাশই গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে। মনোহরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্র কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এব্যাপারে নিহতের পিতা বাদী হয়ে মনোহরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা রুজু করেছে।