মেইন ম্যেনু

বিয়ে মেনে না নেয়ায় আগুনে পুড়ে আত্মহতার চেষ্টা

বিয়ে মেনে না নেয়ায় যশোরের ঝিকরগাছায় শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক দম্পতি।

শুক্রবার রাত আটটার দিকে উপজেলার মল্লিকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অগ্নিদগ্ধ স্ত্রীকে ঢাকায় ও তার স্বামীকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দগ্ধদের স্বজনরা জানান, সম্প্রতি ঝিকরগাছার মল্লিকপুর গ্রামের রফিকুলের ইসলামের ছেলে সুমন একই গ্রামের জাহাবক্স গাজীর মেয়ে মাসুরা খাতুনকে ভালোবেসে বিয়ে করেন। কিন্তু সুমনের পরিবার তাদের বিয়ে মেনে নিতে রাজি হয়নি।

এতে অভিমান করে শুক্রবার রাত আটটার দিকে মশারিতে কেরসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন সুমন ও মাসুরা।

চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এদের মধ্যে মাসুরার অবস্থায় আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে যশোর মেডিকেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

যশোর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ইউসুফ আলী জানিয়েছেন, আগুনে মাসুরার শরীরের ৮০ শতাংশ ও তার স্বামী সুমনের ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে। এদের মধ্যে মাসুরার শ্বাসনালী পুড়ে গেছে।

ঝিকরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্যা খবির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।