মেইন ম্যেনু

বিয়ে সম্পন্ন হলে পোশাকটা খেয়ে ফেলুন!

বিয়ের কাজ শেষ হয়েছে! এবার তাহলে বিয়ের পোশাকটা খাওয়া শুরু করে দিতে পারেন! অবাক হচ্ছেন শুনে? অবাক হলেও সত্য যে, প্রায় ৭৫ কেজি ওজনের এই বিয়ের পোশাকে নেই এক টুকরো সুতো। এমনই এক অবিশ্বাস্য বিয়ের গাউন তৈরি করেছেন ইংলান্ডের তিন নারী।

পোশাকটি বানাতে সময় লেগেছে ৩০০ ঘণ্টা। কিন্তু, কেন পোশাকটি বানাতে এতটা সময় লাগলো, কেনই বিয়ের গাউনটি ছিড়ে ছিড়ে খাওয় যাবে?

আসলে, এই ওয়েডিং গাউনটা দেখতে সত্যিকারের পোশাকের মতো হলেও এটা একটা কেক। আর গাউনের প্রতিটা স্থান, প্রতিটা কোণ খুবই সুক্ষভাবে তৈরি করা হয়েছে। পোশাক তৈরি করা তিন নারীর জানান, কোনও কনে এই পোশাকে শরীর গলাতে পারবেন না। এই পোশাককে শুধু দেখা যাবে আর খাওয়া যাবে।

অর্থাৎ, এই পোশাক পরে কনে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে পারবেন না। তবে বিয়ের অনুষ্ঠানে কেক কাটার কাজটা সারতে পারবেন এই গাউন দিয়ে। গাউনের উপরের সাদা অংশটি তৈরি হয়েছে বিশেষ ধরনের কেক দিয়ে। আর নীচের দিকে আছে কিছু র‌্যাপার পেপার, যা খাওয়া যায়।

আর যাকে ম্যানিকুইন করা হয়েছে সেটাও একটা কেক। এর জন্য ৩৫ কেজি বিশেষ ধরনের ক্রিম ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও লেগেছে ৩ কেজি কেক এবং ২ হাজার ‘শিটস ওয়াটার’।

তাই ইচ্ছে থাকলেও এই সুন্দর বিয়ের গাউনটি পরা দুঃসাধ্য। দুঃখ করে সময় নষ্ট করে বরং আসুন একটা চাকু নিয়ে লেগে পড়া যাক বিয়ের গাউনটাকে কাটতে!