মেইন ম্যেনু

বুদ্ধিমান হলে আপনি যে কাজগুলো কখনোই করবেন না!

আচ্ছা, আপনি কি বুদ্ধিমান? বেশীরভাগ মানুষই উত্তর দেবেন, ‘না’ বা ‘খুব বেশি নয়’। কারণ প্রায় প্রত্যেক মানুষই জীবনে এমন কোনো না কোনো ভুল করেছেন যার কারণে নিজেকে একেবারেই বুদ্ধিমান ভাবেন না। কিন্তু সত্যিকার অর্থে বুদ্ধিমান মানুষ বলতে কি বোঝায় তা জানেন কি? কোনো একটি কাজ দিয়েই মানুষের বুদ্ধির বিবেচনা করা যায় না। তার জীবনযাপন, তার জ্ঞানের পরিধি এবং তার পারিপার্শ্বিক অনেক বিষয়ের মাধ্যমেই মানুষটি আসলেই বুদ্ধিমান কিনা তা যাচাই করা যায়। সে যাই হোক, একজন বুদ্ধিমান মানুষ কখনোই কিছু কাজ করেন না। এই কাজগুলো না করাই তাকে আর দশজন সাধারণ মানুষ থেকে একেবারে আলাদা করে তোলে। তাহলে এবার বলুন, আপনি বুদ্ধিমান তো? দেখুন তো এই কাজগুলো আপনি করেন কিনা। যদি না করেন তাহলে নিঃসন্দেহে আপনাকে একজন বুদ্ধিমান মানুষ বলা চলে।

১) বুদ্ধিমান মানুষেরা কখনোই চোখ বন্ধ করে কারো উপর ভরসা করেন না, তা তিনি যতোই বিশ্বাসযোগ্য মানুষ হন না কেন। কারণ, বুদ্ধিমান মানুষেরা বাস্তবজ্ঞান সম্পন্ন হয়ে থাকেন, যেখানে আবেগকে একটু কমই প্রশ্রয় দেয়া হয়।

২) দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো আচরণ কখনোই করেন না বুদ্ধিমান মানুষেরা। কারণ তারা খুব ভালো করেই জানেন নিজের ব্যক্তিত্বের অনেকটাই তার দায়িত্বজ্ঞানের উপর নির্ভর করে। নিজেকে নির্বোধ হিসেবে পরিচয় দেয়া পছন্দ নয় বুদ্ধিমান মানুষের।

৩) বুদ্ধিমান মানুষেরা হারতে অপছন্দ করেন না। কারণ তারা খুব ভালো করেই জানেন হার জিত জীবনের অংশ এবং হেরে যাওয়ার মধ্যেও অনেক কিছু শেখার রয়েছে। হেরে যাওয়ার অর্থ বিফলতা নয় বরং নতুন আত্মবিশ্বাস নিয়ে এগিয়ে চলা হয়ে থাকে একজন বুদ্ধিমান মানুষের কাছে।

৪) বুদ্ধিমান মানুষেরা কখনোই নিজের ভুলটাকে সঠিক করার চেষ্টা করেন না। নিজের ভুল মেনে নিয়ে তা থেকে শিক্ষা নিয়ে চলতেই পছন্দ করেন বুদ্ধিমানেরা। যারা নির্বোধ তারাই তর্ক করে নিজের ভুলটাকে শুদ্ধ করার ব্যর্থ চেষ্টা করতে থাকেন।

৫) অতীত নিয়ে পড়ে থাকার মতো ভুল কাজ একেবারেই করেন না বুদ্ধিমান মানুষেরা। তারা অতীতকে পেছনে ফেলে নতুন স্মৃতি গড়ায় বিশ্বাসী। তবে এক্ষেত্রে অতীতের শিক্ষাকে তারা ভুলে যান না অবশ্য।

৬) বুদ্ধিমান মানুষেরা নিজের ভাগ্যের উপর ভরসা করে বসে থাকতে একেবারেই পছন্দ করেন না। বরং তারা ভাগ্য লিখতে পছন্দ করেন এবং নিজের ভাগ্য নিজেই তৈরি করে নেয়ার দলে পড়েন তারা।

৭) বুদ্ধিমান মানুষেরা আত্মবিশ্বাসী হয়ে থাকেন, তবে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী তারা কখনোই নন। নিজের উপর আস্থা থাকার অর্থ এই নয় যে আপনি নিজেকে অন্ধের মতো চালিয়ে নেবেন। নিজের যোগ্যতার উপর অগাধ বিশ্বাস থাকাও কিন্তু নির্বুদ্ধিতার পরিচায়ক।

৮) বুদ্ধিমান মানুষেরা শত্রু বানাতে একেবারেই নারাজ। তারা বরং নিজে শত্রুর সাথে বন্ধুত্ব বজায় রেখে চলতেই পছন্দ করেন। খুবই ডিপ্লোম্যাটিক ধরণের হয়ে থাকেন বুদ্ধিমানেরা।

সূত্র: lifehack.org