মেইন ম্যেনু

বৃষ্টিভেজা দুপুরে হোক ইলিশ পোলাও

বৃষ্টির সঙ্গে ইলিশের একটা গোপন সম্পর্ক বরাবরই। বৃষ্টি ভেজা ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা আবহাওয়াতে পাতের কোণে এক টুকরো ইলিশ যেন প্রথম চাওয়া। এমন দিনে দুপুরের স্পেশাল খাবার যদি হয় ইলিশ পোলাও তবে মন্দ কি? কোনো উপলক্ষ্য ছাড়াই বাড়িতে হয়ে যেতে পারে জমপেস খাওয়া দাওয়া। অতিথি আপ্যায়নেও ইলিশ পোলাও এর জুড়ি নেই। তো হয়ে যাক, বৃষ্টিভেজা এই দিনে ইলিশ পোলাও।

যা যা লাগবে

মাঝারি আকারের ইলিশের টুকরা ৮ থেকে ১০ টি, পোলাও চাল এক কেজি, মিষ্টি দই দেড় কাপ, পেঁয়াজ বাটা এক কাপ, রসুন বাটা এক চা চামচ, আদা বাটা দেড় চা চামচ, জিরা গুড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুড়া আধা চা চামচ, হলুদ গুড়া সামান্য, কাঁচা মরিচ ৪ থেকে ৫ টি, তেল এক কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ এবং লবণ স্বাদমত।

যেভাবে করবেন

প্রথমেই মাছের টুকরোগুলো ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। অপর পাত্রে পোলাও চাল ধুয়ে পানি ঝরাতে রেখে দিন। এবার চুলায় কড়াই দিয়ে তাতে একে একে তেল, পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা, জিরা গুড়া, মরিচ গুড়া, হলুদ গুড়া এবং লবণ দিয়ে ভালোভাবে কষিয়ে নিন। কষানো হলে তার মধ্যে মাছের টুকরো, কাঁচা মরিচ এবং দই দিয়ে দিন। মাছগুলো যেন না ভাঙে সেভাবে সাবধানে নেড়ে ঢাকনা দিয়ে মধ্যম আঁচে ৮ থেকে ১০ মিনিট রান্না করুন। মাছ হয়ে গেলে সাবধানে মাছের টুকরোগুলো তুলে নিন।

এবার কড়াইয়ে থাকা মসলাগুলো একটি পাতিলে দিয়ে তার মধ্যে ধুয়ে রাখা চালগুলো দিয়ে দিন। চালটা মসলার সঙ্গে ভালোভাবে মেশান এবং পোলাও রান্নার মত পানি দিয়ে দিন। ঢাকনা দিয়ে ঢেকে মধ্যম আঁচে রান্না করলে ভালো হবে। পোলাও প্রায় হয়ে এলে তার মধ্যে রান্না করা মাছের টুকরোগুলো দিয়ে অল্প আঁচে আরও কিছুক্ষণ রান্না করুন। পোলাও হয়ে গেলে বেরেস্তা করা পেঁয়াজ দিয়ে দিন। ব্যাস হয়ে গেল মজাদার ও জিভে জল আনা ইলিশ পোলাও। এবার নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।