মেইন ম্যেনু

বৃষ্টির ভেতরেও মুসল্লিদের ঢল

বৃষ্টির মধ্যেও মাহে রমজানের দ্বিতীয় জুমার নামাজে মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের ঢল নেমেছিল। জুমার নামাজের আজান দেয়ার আগেই বিভিন্ন বয়সের রোজাদার ও মুসল্লিরা মসজিদের দিকে ছুটতে থাকেন। নামাজ শেষে দেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করেন।

শুক্রবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জুমার নামাজে শরিক হতে অনেক আগে থেকেই মুসল্লিরা আসতে শুরু করেন। জুমার নামাজের আযানের অনেক আগেই জাতীয় মসজিদ কানায় কানায় ভরে যায়। মসজিদের মূল অংশ ছাড়িয়ে রাস্তায় মুসল্লিদের নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে।

মসজিদের ভেতরে জায়গা সংকুলান না হওয়ায় মুসল্লিরা রাস্তার ওপরেই জায়নামায, পলিথিন ও কাগজ বিছিয়ে নামাজ আদায় করেন। বৃষ্টির কারণে মুসল্লিদের মসজিদে আসতে কিছুটা সমস্যায় পড়তে হয়। এরমধ্যেও জুমার নামাজ শেষে মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে দেশ ও জাতির কল্যাণসহ বিশ্ব উম্মার শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাতে শরিক হন মুসল্লিরা।

এদিকে বায়তুল মোকাররম ছাড়াও মিরপুরের রোকেয়া সরণির মসজিদ, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া মসজিদে রমজানের অষ্টম রমজানে দ্বিতীয় জুমায় মুসল্লিদের ছিল উপচে পড়া ভিড়। মসজিদের বাইরে এসব এলাকায় মুসল্লিদের বৃষ্টির পানির মধ্যেই রাস্তায় নামাজ আদায় করতে হয়।

জুমার নামাজকে বিভিন্ন মসজিদের সামনে ও আশপাশের এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়।