মেইন ম্যেনু

বৃষ্টি পড়লেই কঙ্কাল!

পাহাড়ের ঢালে ফুটে গুচ্ছ গুচ্ছ ফুটফুটে সাদা ফুল। কিন্তু বৃষ্টি পড়লেই ম্যাজিক! নিমিষে রং হারিয়ে স্বচ্ছ হয়ে ওঠে ফুলের পাঁপড়ি। গাছটি হয়ে যায় সার কঙ্কাল। প্রকৃতির এমন দৃশ্য চাক্ষুস করা যায় চীন, জাপান আর আমেরিকার পাহাড়ি রাজ্যে।

পোশাকি নাম ডাইফাইলিয়া গ্রায়ি (diphylleia grayi)। তবে লোকমুখে জনপ্রিয় ‘স্কেলিটন ফ্লাওয়ার’ নামে। চীন, জাপান এবং আমেরিকার অ্যাপালাশিয়ান পাহাড়ি অঞ্চলে এ ফুলের আধিক্য দেখা যায়। সম্প্রতি এমন এক ‘সাধারণ’ ফুল নিয়ে ট্যুইটারে তোলপাড়। আসল মজাটা লুকিয়ে রয়েছে ফুলের অদ্ভুত চরিত্রগত বৈশিষ্ট্যে।

লুকোচুরি খেলতে আমরা ভালোবাসি। কিন্তু এই মজার খেলায় সবাইকে টেক্কা দেয় প্রকৃতি। শত্রুর হাত থেকে বাঁচতে তাই রং পাল্টায় গিরগিটি, অচেনা স্পর্শে পাতা মুড়ে ফেলে লজ্জাবতী লতা, মরা ঘাসের আড়ালে অনায়াসে গা ঢাকা দেয় বনের রাজা রয়েল বেঙ্গল টাইগার, এমনকি ঘন ডালপালার আড়ালে বিশাল দেহ লুকিয়ে ফেলতে ওস্তাদ হস্তিযূথ।

মূলত গ্রীষ্ম ও বসন্তে পাঁপড়ি মেলে স্কেলিটন ফ্লাওয়ার। পাহাড়ের ঢালু জমিতে সাদা ফুলের গোছা। অনেকটা ছাতার মতো আকৃতি গাছের পাতার। মানে আর পাঁচটা বুনো ফুলের মতোই তেমন নজরকাড়া রূপ নেই তার।

কিন্তু এ ধারণা সম্পূর্ণ পাল্টে যায় যদি আচমকা এক পশলা বৃষ্টি এসে পড়ে। জলের ফোঁটার স্পর্শে শুরু হয় তার ভেল্কি। চোখের সামনে যেন ধুয়েমুছে সাফ হয়ে যায় পাঁপড়ির সাদা রং। বদলে কাচের মতো স্বচ্ছ হয়ে ওঠে এ ফুল। রং-রূপ হারিয়ে যেন সত্যিই এক কঙ্কালে রূপান্তরিত হয়।

ট্যুইটারে এই ফুলের ছবি পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে বিস্ময়ের বন্যা বয়ে যায়। অনেকে বলছেন, এ যেন রূপকথার পাতা থেকে সরাসরি উঠে এসেছে। আবার কেউ টিপ্পনি কেটেছেন, বৃষ্টি পড়লেই স্বচ্ছ।