মেইন ম্যেনু

বৃহস্পতিবার মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরবে ১৫৯ জন

মিয়ানমারের জলসীমা থেকে উদ্ধার হওয়া অভিবাসী প্রত্যাশীদের মধ্যে বাংলাদেশী হিসেবে শনাক্ত হওয়া ১৫৯ জনকে চতুর্থ দফায় ফেরত আনা হবে আজ বৃহস্পতিবার।
৩০ জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের ঘুমধুম জিরো পয়েন্টে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে এক পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে এদেরকে হস্তান্তর করার কথা রয়েছে ।
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও মিয়ানমার ইমিগ্রেশন বিভাগের মধ্যে এ পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এতে বাংলাদেশের পে বিজিবি’র ১৭ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. রবিউল ইসলাম নেতৃত্ব দানের কথা রয়েছে। তিনি বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বাংলাদেশী হিসেবে শনাক্ত হওয়া এদের দেশের ফেরত আনা হচ্ছে।
১৫৯ জনের মধ্যে দেশের ১০ জেলার বাসিন্দা রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আর্ন্তজাতিক অভিবাসন সংস্থার ন্যাশনাল প্রোগাম অফিসার আসিফ মুনীর।
তিনি জানান, এর মধ্যে নরসিংদীর ৮০ জন, নারায়ণগঞ্জ ১২ জন, কিশোরগঞ্জ ১৩ জন, চট্টগ্রাম ১৮ জন, ফরিদপুর ১২ জন, হবিগঞ্জ ১৭ জন, নওগাঁ ২ জন, নাটোর ১ জন, শরীয়তপুর ৩ জন ও বরিশালের ১ জন বাসিন্দা রয়েছে। এছাড়াও ১৫৯ জন বাংলাদেশির মধ্যে ১৬ জন শিশু রয়েছে।
সূত্র জানিয়েছে, সমুদ্র পথে অবৈধ ভাবে মালয়েশিয়ায় যাত্রাকালে গত ২১ মে মিয়ানমারের জলসীমা থেকে সাগরে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার হওয়া ২০৮ জন এবং ২৯ মে আরো ৭২৭ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করে দেশটির নৌ-বাহিনী। এর মধ্যে ৮ জুন, ১৯ জুন ও ২২ জুলাই তিন দফায় বাংলাদেশে ফেরত আনা হয় ৩৪২ জনকে।