মেইন ম্যেনু

বেরোবিতে গণিত বিভাগের শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন ও অবস্থান ধর্মঘট

রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে(বেরোবি)সেশনজট নিরসন ও বিভাগীয় সকল সমস্যা দূরীকরনে ক্লাস বর্জন করে অবস্থান ধর্মঘট শুরু করেছে গণিত বিভাগের শিক্ষার্থীরা।নির্ধারিত সময়ে ফলাফল প্রদান,পূর্ণাঙ্গ সিলেবাস প্রদান,অতি শীঘ্রই স্নাতকোত্তর নীতিমালা সহ অন্যান্য মৌলিক দাবি পূরন ও সেশনজট নিরসনে আজ রবিবার বিভাগের মূল ফটকে তালা লাগিয়ে এ ধর্মঘট শুরু করে।
আগামীকাল সকাল ৯ টায় আবারও কর্মসূচি অব্যাহতের ঘোষণা দিয়ে আজকের মত কর্মসূচি পালন শেষ করে শিক্ষার্থীরা।
এ সময় বিভাগের মঞ্জুরুল কবীর নয়ন, শামসুর রহমান শাওন, শংকর মন্ডল,আসাদুজ্জামান সহ ৭ টি ব্যাচের শিক্ষার্থীরাই এ কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করে।শিক্ষার্থীরা এ সময় তাদের পেশকৃত সকল দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেন।
তাদের পেশকৃত ৭ দফা দাবিগুলো হচ্ছে..১.সেশনজট নিরসনে পূর্ণাঙ্গ একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের লিখিত অঙ্গিকার দিতে হবে।২. গত সেমিস্টারের সকল ব্যাচের ফলাফল প্রদান পূর্বক চলতি সেমিস্টারের ফাইনাল পরীক্ষার তারিখ অতিশীঘ্রই প্রদান করতে হবে। ৩.সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা শুরুর ১৫ দিন পূর্বেই সকল বিষয়ের Continuous Assessment Report প্রদান করতে হবে।৪. সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬ সপ্তাহের মধ্যে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষার ফলাফল প্রদান করতে হবে।৫.সকল ব্যাচের পূর্ণাঙ্গ সিলেবাস প্রদান করতে হবে।৭.অতিশীঘ্রই ¯স্নাতকোত্তর এর নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে।
উল্লেখিত দাবি আদায় না হলে ঘোষিত কর্মসূচি চালিয়ে যাবার এবং প্রত্যাহার না করার ঘোষনা দেন তারা।
ক্লাস বর্জন ও অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচির ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে বিভাগের ১ম ব্যাচের শিক্ষার্থী মঞ্জুরুল কবীর বলেন,আমাদের মাস্টার্স শুরু হয়েছে ২০১৪ সালের জুন মাসে।তবে এখনও সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা হয়নি।এমনকি আমাদের মাস্টার্সের পূর্ণাঙ্গ সিলেবাসও দেওয়া হয়নি।আরেক শিক্ষার্থী উৎপল মহন্ত বলেন, আমাদের ৩য় সেমিস্টার ফাইনাল শেষ হয়েছে এক বছরে।তবে এখনও পরীক্ষা দেওয়া পর ৮ মাসেও রেজাল্ট পাওয়া যায়নি।

d
শিক্ষার্থীদের পেশকৃত দাবি ও সমস্যা দূরীকরনে বিভাগীয় প্রধান কমলেশ চন্দ্র সরকারকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন,আগামীকাল সকল শিক্ষককে ডেকে মিটিং করা হবে।তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের পেশকৃত ও সম্ভাব্য সমস্যা যতটুকু সমাধান করা যায় আমরা তা চেষ্টা করব।’
উল্লেখ্য এই বিভাগটির যাত্রা শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই।২০০৮ সালে বাংলা,অর্থনীতি সহ বেশ কিছু বিভাগের সাথে যাত্রা শুরু করলেও ৭টি ব্যাচের মাত্র ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের একটি ব্যাচ বের হয়েছে অপরটির অনার্স ফাইনাল চলছে।