মেইন ম্যেনু

বেরোবিতে জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশ

এইচ.এম নুর আলম, বেরোবি প্রতিনিধি : রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ( বেরোবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা- কর্মচারী, স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সচেতন অবিভাবক, বিভিন্ন মসজিদের ইমামদের নিয়ে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদ বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ক্যাম্প সংলগ্ন গেটের সামনের রাস্তায় সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘বাংলার মুখ’ ও ‘বঙ্গবন্ধু পরিষদ (শিক্ষক)’ এর উদ্যোগে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা বাংলার মুখের সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সদস্য সচিব গনিত বিভাগের শিক্ষক মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তারা বলেন, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশকে রুখে দাড়াতে হবে। প্রতিটি ঘরে গণসচেতনতা বাড়াতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পরিবার সর্বত্র এই সচেতনতা বাড়ানো দরকার বলে বক্তারা অভিমত প্রকাশ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন এর উপস্থাপনায় সমাবেশে রংপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাফিয়ার রহমান সফি, সহ- সভাপতি দিলশাত হোসেন মুকুল, সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, মহানগর যুবলীগ নেতা মামুন ও সাইফুল ইসলাম, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ২৮ নং ওয়ার্ডের কমিশনার ইদ্রিস আলী, একই ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সভাপতি নেছার আহমেদ, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. আর এম হাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান প্রধান,সহকারী প্রক্টর রুহুল আমীন, শিক্ষক গাজী মাজহারুল আনোয়ার, শফিক আশরাফ, বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম রকিবউদ্দিন আহমেদ,রংপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান রনি ও সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান কানন প্রমূখ বক্তব্য পেশ করেন।

সংহতি প্রকাশ করে সমাবেশে শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান প্রধান বলেন,বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদের সাথে জড়িত,এটা আমি বিশ্বাস করি না। কারণ,এখানে সেই শিক্ষা,সংস্কৃতি শিক্ষা দেওয়া হয় না। তিনি আরো বলেন,সন্ত্রাসবাদ-জঙ্গিবাদ একটি জাতীয় নৈরাজ্য এবং আন্তর্জাতিক চক্রান্ত। আরেক বক্তা বলেন,সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সাথে জড়িত শিক্ষার্থীদের আগে তাদের মদদদাতাদের খুঁজে বের করতে হবে।