মেইন ম্যেনু

বেড়াতে গেলে এড়িয়ে চলুন এই ৮টি খাবার

কোথাও বেড়াতে গেলে স্বভাবতই আনন্দের কোনো সীমা থাকে না। পরিবার, বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর মজাই অন্যরকম। এই সময় খাওয়া-দাওয়ার ক্ষেত্রেও আমরা ঠিক বিধিনিষেধ মেনে চলতে চাই না। আনন্দের আতিশয্যে খেয়ে নেই সব কিছুই, যা একেবারেই ঠিক নয়। ফলে বেড়ানো শেষে আসার পর ভোগী নানারকম অসুস্থতায়, এমনকি শরীর খারাপ হতে পারে ভ্রমণরত অবস্থায়ও। তাই কোথাও বেড়াতে গেলে খাওয়ার ক্ষেত্রে একটু তো খেয়াল রাখতেই হবে। চলুন জেনে নেই বেড়াতে গেলে কোন ৮টি খাবার এড়িয়ে চলবেন।

খোসাছাড়া ফল: বেড়াতে গিয়ে ফল অবশ্যই খাবেন তবে খোসাযুক্ত ফল। তাও খোসা ছাড়ানোর আগে পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। খোসাছাড়া ফল ধুলেও পানির ব্যাকটেরিয়ার কারণে পুরোপুরি পরিষ্কার হয় না। খোসা ফলকে রক্ষা করে। তাই আপেল, আঙুরের বদলে কমলালেবু, কলা জাতীয় ফল খান।

জমানো খাবার: যখন খাবার জমিয়ে রাখা হয়, একটু বের করে গলিয়ে আবার জমানো হয় তখন সবচেয়ে বেশি ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধে। পৃথিবীর বেশির ভাগ ফ্রিজে রাখা খাবারই তাই। কখনো বের করা হয়, আবার ঢোকানো হয়। তাই ফ্রোজেন ফুড নয়, টাটকা খাবার খান।

হাফ বয়েল বা পোচড ডিম: ডিম যেমন স্বাস্থ্যকর, তেমনই ক্ষতিকারকও হতে পারে। আধা সিদ্ধ ডিম রেখে দিলে সালমোনেল্লা ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধে। বাইরে এই ডিম খাওয়া এড়িয়ে চলুন।

কাঁচা সবজি ও সালাদ : কোন পানিতে কাঁচা সবজি ধোওয়া হচ্ছে জানেন না, কীভাবেই বা রাখা হচ্ছে তাও জানেন না। কখন কাটা হয়েছে সালাদ তাও জানা নেই। তাই বাইরে অবশ্যই সালাদ খাওয়া এড়িয়ে চলুন।

রেস্তোরাঁর খাবার: বেড়াতে গেলে খাওয়ার সময়ের ঠিক থাকে না। অসময়ে কোনো রেস্তোরাঁয় ঢুকে যা পাওয়া যায় তাই খেয়ে নেওয়া হয়। এর থেকে রাস্তার খাবার ভালো। অন্তত নিজের চোখের সামনে বানাতে দেখতে পাবেন। খালি রেস্তোরাঁয় খাবার টাটকা কি না জানেন না, তবে লোকজন ভর্তি রেস্তোরাঁয় টাটকা রান্না খাবার পেতে পারেন।

সোডা: বেড়াতে গেলে তৃষ্ণা মেটাতে মিনারেল ওয়াটারই সবচেয়ে সুরক্ষিত। সোডা খেলেও বোতল বা ক্যানের সোডা খেতে পারেন। কিন্তু রেস্তোরাঁয় খোলা সোডা বা ফাউন্টেন সোডা একেবারেই এড়িয়ে চলুন।

আধা সিদ্ধ মাংস ও সি ফুড: সি ফুড, ছেঁকা মাংস অনেকেরই প্রিয় খাবার। সমুদ্রের ধারে বেড়াতে গেলে এসব খাবার খাওয়া চাই-ই চাই। জানেন কি আধা সিদ্ধ সি ফুড ব্যাকটেরিয়ার আঁতুড়ঘর? শরীর খারাপ হতে বাধ্য। অনেক সময় হয়ে যেতে পারে মারাত্মক অ্যালার্জিও।

অ্যানপ্যাসচুরাইজড দুগ্ধজাত দ্রব্য: বেড়াতে গেলে অনেক সময়ই পিজা, চিজ জাতীয় খাবার খাওয়া হয়। এগুলো এড়িয়ে চলাই ভালো। অ্যানপ্যাসচুরাইজড দুগ্ধজাত খাবারে সালমোনেল্লা, ই কোলাই, লিস্টেরিয়া জাতীয় ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধে। -সাপ্তাহিক এই সময় এর সৌজন্যে