মেইন ম্যেনু

বিদেশি হত্যায় বিএনপির সংশ্লিষ্ঠতা নেই

ব্যক্তিগত কোনো হত্যার দায় নেবে না বিএনপি

দলের কেউ ব্যক্তিগত কারণে কাউকে হত্যা করলে তার দায়ভার বিএনপি নেবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘তবে কোনো হত্যার সঙ্গে ক্ষমতাসীনা যদি বিএনপির নেতাকর্মীদের জড়ানোর চেষ্টা করে, তাহলে অবশ্যই দল সেটার প্রতিবাদ করবে।’

বুধবার বিকেলে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচে আয়োজিত এক দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।

‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সুস্থতা কামানায়’ এ দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে কৃষক দল।

দুই বিদেশি হত্যার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াত জড়িত- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্য সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারকে প্রভাবিত করবে।’

দুই বিদেশি হত্যা প্রসঙ্গে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘দুই বিদেশি হত্যার বিষয়ে সরকারের মন্ত্রীরা হাস্যকর, অবান্তর ও অবিশ্বাসযোগ্য কথা বলছেন। সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্য শুনে মনে হয় তাদের সবার মাথা খারাপ হয়েছে। আমি তাদের পরামর্শ দিতে চাই, এসব অবান্তর ও অবিশ্বাসযোগ্য কথা বন্ধ করুন।’

সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘দুই বিদেশি হত্যার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করার জন্য আগেও বিএনপি তদন্তের দাবি করেছিল। আবারও বিএনপির পক্ষ থেকে আমি দাবি করছি, শুধু দুই বিদেশি হত্যা নয়, বিএনপির নেতাকর্মীদের হত্যার সঙ্গে যারা জড়িত তাদেরও সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে খুঁজে বের করুন।’

দুই বিদেশি হত্যার সঙ্গে ক্ষমতাসীনরা ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেলকে জড়ানোর ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

নিজ দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে বিএনপিরে এ নেতা বলেন, ‘আন্দোলন ব্যতিত দেশের চলমান হিংসা, খুন ও গুম বন্ধ হবে না। তাই খুব শিগগির বেগম জিয়ার নেতৃত্বে রাজপথের আন্দোলনে নামতে হবে।’

আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, সহদপ্তর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি, শামীমুর রহমান শামীমসেহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দোয়া ও মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন ওলামা দলের সভাপতি এমএ মালেক।

বিদেশি হত্যায় বিএনপির সংশ্লিষ্ঠতা নেই