মেইন ম্যেনু

ব্যতিক্রমী প্রদর্শনী, থাকছে শ্রেষ্ঠ কুকুর পুরস্কার

কুকুর প্রদর্শনী। কথাটা শুনার পর পাঠকরা হয়তো চমকে উঠবেন। এরপর ভাববেন এতোকিছু থাকতে কুকুর প্রদর্শনী কেন করা হলো এবং এর মূল উদ্দেশ্যটাই বা কী? তাহলে আসুন যেনে আসি এই ব্যতিক্রমধর্মী কুকুর প্রদর্শনের উদ্দেশ্য ও কারণ।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে এই ব্যতিক্রমধর্মী পোষা কুকুর প্রদর্শনী ও র‌্যালির আয়োজন করে ন্যাশনাল সালভেশন মুভমেন্ট। ন্যাশনাল সালভেশন মুভমেন্টের চেয়ারম্যান দার্শনিক জালাল উদ্দিন মজুমদার এ তথ্য জানান।

জালাল উদ্দিন মজুমদার বলেন, ‘দেশে কুকুরের কদর মূল্যায়ন বৃদ্ধি, অধিকতর প্রশিক্ষণের সুযোগ সৃষ্টি করা এবং কুকুরের প্রতি যত্ন বৃদ্ধির জন্য এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।’

তিনি জানায়, প্রদর্শনীতে ১২ প্রজাতির প্রায় ৪০টি কুকুর রয়েছে। এর মধ্যে আছে- ল্যাবেডর, ডোবারম্যা, ইংলিশ ককার প্যানেল, গোল্ডেন রিকটিভার, পাগ, জার্মান সেফার্ড, রট ইউলার।

এদিকে কুকুর প্রদর্শন ছাড়াও দুপুর থেকে পোষা প্রাণীর ফ্রি ভ্যাকসিন প্রদান, এরপর কুকুর প্রশিক্ষণ প্রদর্শন এবং বেলা ৩টায় পুরস্কার বিতরণ ও পোষা প্রাণীর র‌্যারি অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া প্রদর্শনীতে শ্রেষ্ঠ কুকুর বিবেচনা করে মালিকদের পুরস্কার দেয়া হবে বলেও জানান জালাল উদ্দিন মজুমদার।
কুকুর প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ভেটেনারি অধ্যাপক ড. মো. হালিম।