মেইন ম্যেনু

ব্যায়ামের আগে ওয়ার্মআপ করার প্রয়োজনীয়তা

বেশিরভাগ মানুষই ব্যায়াম করে থাকে স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য, দেহের আকার ঠিক রাখার জন্য এবং দীর্ঘজীবী হওয়ার জন্য। যদি আপনি ব্যায়ামের ক্ষেত্রে নতুন হয়ে থাকেন তাহলে আপনার স্মরণে রাখতে হবে যে, ব্যায়ামের আগে ওয়ার্মআপ করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। আর আপনি যদি আগে থেকেই ব্যায়ামে অভ্যস্ত হয়ে থাকেন তাহলে আপনি ওয়ার্ম আপ সেশনের গুরুত্ব সম্পর্কে জানেন। অনেকেই মনে করে ওয়ার্ম আপ হচ্ছে ব্যায়ামের জন্য মানসিক প্রস্তুতি নেয়ার একটি বিষয়। কিন্তু ওয়ার্ম আপ বাদ দিয়ে ব্যায়াম শুরু করলে তা আপনার অনেকটাই শারীরিক ক্ষতিও করতে পারে। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক ওয়ার্ম আপ এর উপকারিতাগুলো সম্পর্কে।

১। শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে

ওয়ার্ম আপ শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে যা কার্যকরী ওয়ার্ক আউটের জন্য প্রয়োজনীয়। শরীরে অক্সিজেনের সরবরাহ বৃদ্ধি করে ওয়ার্ম আপ।

২। মাংসপেশীতে রক্তপ্রবাহকে উদীপ্ত করে

ওয়ার্ম আপ এর ফলে মাংসপেশীতে ঠিক ভাবে রক্ত সঞ্চালন হয়। এর ফলে মাংসপেশী ও অস্থিসন্ধির কাজ করার ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। এতে মাংসপেশী ও অস্থিসন্ধির গতি সহজ হয়। ফলে বিভিন্ন ধরণের ব্যায়ামের জন্য শরীর প্রস্তুত হয়।

৩। পারফরমেন্সের উন্নতি ঘটায়

২০১০ সালে স্ট্রেন্থ এন্ড কন্ডিশনিং রিসার্চ জার্নালের মতে, ব্যায়ামের পূর্বে ওয়ার্ম আপ করলে পারফরমেন্সের তাৎপর্যপূর্ণ উন্নতি হয় এবং এটি কোনভাবেই ক্ষতিকর নয়।

৪। স্নায়ুকে অনেক বেশি সংবেদনশীল করে তোলে

ওয়ার্ম আপ করলে স্নায়ুর সংবেদনশীলতার উন্নতি হয় এবং স্নায়ুর ইম্পালস বৃদ্ধি পায়। এর সহজ অর্থ হচ্ছে ওয়ার্ম আপ আপনার মটর স্কিল বৃদ্ধি করে। এর ফলে মস্তিষ্ক এবং মাংসপেশী ও দেহের মধ্যে সমন্বয় হয়। মস্তিষ্ক কি করতে চাচ্ছে সেই অনুযায়ী মাসেল ও শরীর পারফর্ম করে।

৫। আসন্ন পরিশ্রমের জন্য হৃদপিণ্ডকে প্রস্তুত করে

হৃদপিণ্ড যেহেতু সারা শরীরে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্ত সরবরাহ করে তাই ওয়ার্ম আপের মাধ্যমে পরবর্তীতে অতিরিক্ত অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা যেন পূরণ করতে পারে সেজন্য হৃদপিণ্ডকে প্রস্তুত করে।

৬। আঘাতের সম্ভাবনা কমায়

২০০৭ সালে স্পোর্টস মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা যায় যে, ব্যায়াম শুরু করার আগে ওয়ার্ম আপ করে নিলে আঘাত পাওয়ার সম্ভাবনা কমে। ভারী কোন ওজন উঠানোর সময় শক্তি অর্জনের জন্য মাসেল শক্ত হয়ে যায় এবং ওজন উঠাতে সক্ষম হয়। পেশীকে পিচ্ছিল করার জন্য দেহে তরল নিঃসৃত হয়। ব্যায়ামের সময় মাসেল ক্রমাগত সংকুচিত ও প্রসারিত হয়। তাই পেশীর পিচ্ছিলতা অনেক জরুরী। যদি ব্যায়াম শুরু করার পূর্বে ওয়ার্ম আপ করে নেন তাহলে শরীর বেশি পরিমানে তরল নিঃসৃত করবে মাংসপেশীকে রক্ষা করার জন্য।

মাত্র কয়েক মিনিটের ওয়ার্ম আপ আপনাকে ভালো পারফর্ম করতে সাহায্য করবে, আঘাত থেকে রক্ষা করবে এবং আপনার ব্যায়ামের অভিজ্ঞতাকে ইতিবাচক ও কার্যকরী করবে।