মেইন ম্যেনু

ব্রাজিলের অলিম্পিক নায়ক জাতীয় দলে

পেনাল্টি ঠেকিয়ে ব্রাজিলকে অলিম্পিক সোনা এনে দেয়া সেই গোলরক্ষক ওয়েভারটন ব্রাজিলের জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন। তিনি ছাড়াও অলিম্পিক দলের মোট ছয়জন খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ বাছাইপর্বের দলে ডেকেছেন নতুন কোচ তিতে। সামনের মাসে ইকুয়েডর এবং কলম্বিয়ার বিপক্ষে তাদের মাঠে দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

২৩জনকে নিয়ে ঘোষিত এই দলে সবচেয়ে বিস্ময়কর নাম টটেনহ্যামের সাবেক ফ্লপ তারকা পওলিনহো।

কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়া ব্রাজিল দলে অনেক পরিবর্তন হবে এটা অনুমিতই ছিল।

আগামী ১ সেপ্টেম্বর একুয়েডর ও তার পাঁচ দিন পর কলম্বিয়ার বিপক্ষে খেলবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে বর্তমানে ৬ নম্বরে রয়েছে ব্রাজিল। দায়িত্ব নেওয়ার সময় তিতে বলেছিলেন, রাশিয়া বিশ্বকাপ নিশ্চিত করাটা এবার ব্রাজিলের জন্য কঠিন হবে।

দক্ষিণ আমেরিকা থেকে শীর্ষে থাকা চারটি দল সরাসরি বিশ্বকাপের মূল পর্বে যাবে। পঞ্চম স্থানে থাকা দলটিকে খেলতে হবে প্লে-অফ।

ব্রাজিল দল:

গোলরক্ষক: আলিসন (রোমা), মার্সেলো গ্রোহে (গ্রেমিও), ওয়েভারতন (আতলেতিকো পারানায়েনসে)

ডিফেন্ডার: দানিয়েল আলভেস (ইউভেন্তুস), ফাগনার (করিন্থিয়ান্স), ফেলিপে লুইস (আতলেতিকো মাদ্রিদ), মার্সেলো (রিয়াল মাদ্রিদ), জিল (শানদং লুনেং), মারকুইনিয়োস (পিএসজি), মিরান্দা (ইন্টার মিলান), রদ্রিগো কাইয়ো (সাও পাওলো)।

মিডফিল্ডার: কাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), জুলিয়ানো (জেনিত), রাফায়েল কারিয়োকা, (আতলেতিকো মিনেইরো), পাওলিনিয়ো (গুয়াংজো এভারগ্রান্দে), লুকাস লিমা (সান্তোস), রেনেতো আগুস্তো (বেইজিং গুয়ান), ফেলিপে কৌতিনিয়ো (লিভারপুল), উইলিয়ান (চেলসি)।

ফরোয়ার্ড: নেইমার (বার্সেলোনা), গাব্রিয়েল বারবোসা (সান্তোস), গাব্রিয়েল জেসুস (পালমেইরাস), তাইসন (শাখতার দোনেৎস্ক)।