মেইন ম্যেনু

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ট্রাম্পকে নিয়ে বিতর্ক

ব্রিটেনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবিতে চলতি মাসে বিতর্ক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পার্লামেন্টের সদস্যরা। মঙ্গলবার পার্লামেন্টের এক বৈঠকে হাউস অব কমন্সের পিটিশন কমিটি এই ইস্যুটি নিয়ে একটি বিতর্ক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মুসলমান, ম্যাক্সিকো এবং অন্যান্য বিষয়ে তীব্র সমালোচনা ও কটাক্ষের কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে যেন যুক্তরাজ্যে প্রবেশ করতে দেয়া না হয় সেই দাবি জানিয়ে কমপক্ষে ৫ লাখ ৭০ হাজার ব্রিটিশ নাগরিক একটি অনলাইন পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন। অপর দিকে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ তাকে যেন নিষিদ্ধ করা না হয় সেজন্য তার পক্ষ নিয়ে স্বাক্ষর করেছেন।

ব্রিটেনের নাগরিকরা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবিতে পিটিশনটি দাখিল করেন। আর একারণেই দু’পক্ষকে নিয়ে জানুয়ারির ১৮ তারিখে একটি বিতর্কের আয়োজন করা হবে।

এর আগেও বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের জন্য অনেককেই যুক্তরাজ্যে প্রবেশ নিষেধ করেছে কর্তৃপক্ষ। দেশটিতে নিয়ম অনুযায়ী, কোনো পিটিশনের পক্ষে ১ লাখ স্বাক্ষর জমা পড়লেই পার্লামেন্টে সেই প্রস্তাবের বিষয়ে বিতর্ক করার সুযোগ থাকে। আর একারণেই ব্রিটেনের প্রতিটি এলাকার লোকজন যেন ট্রাম্পের বিপরীতে অবস্থান নিয়ে স্বাক্ষর করেন সে জন্য ব্যাপকভাবে ক্যাম্পেইন করা হয়েছে। আর এই ক্যাম্পেইনের পরেই ট্রাম্পকে নিষিদ্ধের দাবিতে ৫ লাখ ৭০ হাজার মানুষ স্বাক্ষর করেছেন। এর বিপরীতে অপর একটি গণপিটিশন নিয়েও ব্রিটিশ আইনপ্রণেতারা আলোচনা করবেন।

ট্রাম্প সম্প্রতি সোমবার তার নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে টেলিভিশ একটি বিজ্ঞাপন প্রচার করেছেন। সেখানেও তিনি যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব দিয়েছেন। শুধু তাই নয় ক্ষমতায় গেলে সীমানায় প্রাচীর দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন তিনি। যেন অভিবাসীরা অবাধে দেশটিতে প্রবেশ করতে না পারে।