মেইন ম্যেনু

বয়স ধরে রাখুন এই পাঁচ খাবারে

আয়নার সামনে দাঁড়ালেই চোখের নিচে আইব্যাগ, কানের কাছে পাক ধরা চুল দেখে মন খারাপ হয়ে যায়। ভাবছেন বয়স ধরে রাখতে আজই ডায়েট থেকে বাদ দিতে হবে অস্বাস্থ্যকর খাবারগুলো? এতটা কড়াকড়িও কিন্তু ঠিক নয়। যৌবন ধরে রাখতে স্বাস্থ্যকর খাবারের পাশাপাশি ডায়েটে কিন্তু চকোলেটের মতো ‘অস্বাস্থ্যকর’ খাবারও দরকার।

জেনে নিন কোন পাঁচটা খাবার প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় থাকলে আটকে থাকবে বয়স।

চকোলেট

পানামার সান ব্লাস দ্বীপের কুনা প্রজাতির মধ্যে নাকি হার্টের অসুখ প্রায় দেখাই যায় না। কারণ কুনারা প্রচুর চকোলেট খান। প্রতি দিন ডায়েটে কোমল পানীয় থাকলে নাকি উচ্চ রক্তচাপ, টাইপ টু ডায়বেটিস, কিডনির সমস্যা এমনকী ডিমেনশিয়া রোগও বলবে পালাই পালাই। শরীরে রক্ত চলাচল ভাল রাখতেও সাহায্য করে চকোলেট। আর ত্বকের বলিরেখা রুখতে চকোলেট ফেশিয়ালের কথা তো নিশ্চয়ই শুনেছেন।

দই

বয়স ৩৫-য়ের কোঠা পেরোলেই দুর্বল হতে থাকে হাড়। দেখা দেয় বাত, অস্টিওপরেসিসের মতো সমস্যা। তাই এই সময়ে ডায়েটের সব থেকে দরকারি উপাদান ক্যালসিয়াম। কারণ, বাতে ধরলেই আপনার চেহারায় বুড়োটে ভাব আসতে বাধ্য। দইয়ের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম। হাড় সুস্থ রাখতে তাই প্রতি দিন ডায়েটে রাখুন এক বাটি টক দই। বয়স হলে দুধ হজম করতে সমস্যা হয়ে অনেকের। দুধের বিকল্প হিসেবে তাই দই খান। ঘি, ছানা বা অন্যান্য দুগ্ধজাত জিনিসের থেকে কিন্তু দই অনেক সহজপাচ্য।

মাছ

মাছেভাতে বাঙালি কিন্তু সহজেই বয়স ধরে রাখতে পারে। মাছের মধ্যে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড যা স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত উপকারি। প্রতি দিনের ডায়েটে মাছ থাকলে বয়সকালে চোখে ছানি পড়ার সম্ভাবনা কমে। মাছের তেল হার্ট যেমন ভাল রাখে, তেমনই ধরে রাখে হজম ক্ষমতাও।

বাদাম

বাদামের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আনস্যাচুরেটেড ফ্যাট, ভিটামিন, খনিজ, ফাইটোকেমিক্যাল ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। প্রতি দিন ঘুম থেকে উঠে চারটে আমন্ড বা কাজু অথবা বিকেলে এক মুঠো চিনেবাদাম আপনার বয়স বাড়ার গতি কমিয়ে দিতে পারে। বাদাম বেটে ফেশিয়াল, বাদাম তেল চুলে মাসাজ করলেও ত্বক, চুলের স্বাস্থ্য ভাল থাকবে।

ওয়াইন

প্রতি দিনের ডায়েটে যদি থাকে ওয়াইন তবে হার্টের অসুখ, স্মৃতিশক্তি কমে আসা, ডায়াবেটিসের মতো অনেক রোগ কাছে ঘেঁষতে পারবে না। তবে বেশি মাত্রায় অ্যালকোহলে কিন্তু শরীর ভেঙে যেতে বাধ্য। সঠিক পরিমাণে ওয়াইন যেমন স্বাস্থ্য ধরে রাখবে, তেমনই ত্বকের বলিরেখাও থাকবে শত যোজন দূরে।



« (পূর্বের সংবাদ)