মেইন ম্যেনু

বয়স রোধী খাবারগুলোকে চিনুন

বয়স বৃদ্ধির প্রক্রিয়াটি আমাদের জীবনেরই একটি অংশ। বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে শরীরে বিভিন্ন ধরণের পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায় ত্বকে, শরীরের আকারে, গতিশীলতা ও নমনীয়তায়, ক্রনিক রোগ হওয়ার লক্ষণে, হরমোনের ভারসাম্যে, দৃষ্টিশক্তিতে, পরিপাকের দক্ষতায়, সহ্য ক্ষমতায় এবং হাড়ের ঘনত্বে। কিছু খাবার বয়স বৃদ্ধির প্রক্রিয়াকে ধীর করতে পারে। বয়স রোধী এমন কয়েকটি খাবারের কথাই জানবো এখন।

১। জাম জাতীয় ফল

আপনি যদি নিজের তারুণ্য ধরে রাখতে চান তাহলে জাম জাতীয় ফলগুলো খান। জাম বা বেরি জাতীয় ফলে উচ্চ মাত্রার খনিজ, ভিটামিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকে যা কোষের সুরক্ষায় কাজ করে এবং ফ্রি র‍্যাডিকেলের প্রভাব প্রতিরোধ করে।

২। পেঁয়াজ

পেঁয়াজ আপনার গ্যাস্ট্রোইন্টেস্টাইনাল সিস্টেমকে সুরক্ষা দিতে চমৎকার ভাবে কাজ করে এবং পাকস্থলীকে স্বাভাবিক ভাবে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করে। বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে আপনার সঠিক পুষ্টি গ্রহণ করাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু পাকস্থলীতে ইনফ্লামেশন, আলসার ইত্যাদি কোন সমস্যা থাকলে তা সম্ভব হয়না। পেঁয়াজের সক্রিয় উপাদান পরিপাক প্রক্রিয়াকে ইতিবাচক হতে সাহায্য করে। আপনার বয়সকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইলে পেঁয়াজ খান।

৩। মাছ

বয়স বাড়ার সাথে সাথে হৃদপিন্ডকে সুস্থ রাখাটা বেশ কঠিন। এটি আমাদের বিপাক, এনার্জি লেভেল, গতিশীলতা ও সহনশীলতাসহ আরো অনেক কিছুর উপর প্রভাব ফেলে। সামুদ্রিক বা তৈলাক্ত মাছে ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড থাকে যা কোলেস্টেরলের ভারসাম্য রক্ষা করতে এবং অকাল বার্ধক্য প্রতিরোধে সাহায্য করে। মাছের ফ্যাট হৃদপিন্ড ও শরীরকে স্বাস্থ্যবান ও পাতলা রাখতে সাহায্য করে বয়স্ক অবস্থায়।

৪। সিম বা মটরশুঁটি

বেশীরভাগ সিমেই ফাইবার ও মিনারেলে সমৃদ্ধ থাকে যা সার্বিক স্বাস্থ্যের জন্যই প্রয়োজনীয়। পেটের বিভিন্ন সমস্যা যেমন- পেট ফাঁপা, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি দূর করতে সাহায্য করে মটরশুঁটির পুষ্টি উপাদান। পরিপাক তন্ত্রের সুস্থতা আপনাকে সতেজ ও প্রানবন্ত থাকতে সাহায্য করবে এবং বয়স বৃদ্ধি রোধেও সাহায্য করবে।

৫। বাদাম

আরেকটি সহজ খাবার হচ্ছে বাদাম যা আপনার বয়স রোধে সাহায্য করে। উচ্চ মাত্রার স্বাস্থ্যকর ফ্যাট, পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ই এবং প্রোটিন থাকে বিভিন্ন ধরণের বাদামে। যা ব্লাড প্রেশার, হাড়ের শক্তি, প্রদাহ, কোষের/কলার বৃদ্ধি এবং হরমোনের ভারসাম্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। প্রতিদিন একমুঠো বাদাম খাওয়া আপনাকে তরুণ থাকতে সাহজ করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবান ও রাখবে।