মেইন ম্যেনু

ভাত না দেওয়ায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা

নাটোর জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলায় ভাত খেতে না দেওয়ায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করেছন মারুফ হোসেন (২২) নামেরএক ব্যক্তি। গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলার উপলোর চন্দ্রখইর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় লোকজন মারুফকে পুলিশে সোপর্দকরে।

বাগাতিপাড়া থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রামাগাড়ি গ্রামের ইমামুল হকের মেয়ে ইমা বেগমের (১৮) সঙ্গে প্রায় এক বছর আগে চন্দ্রখইর গ্রামের মৃত বজলুর রহমানের ছেলে মারুফ হোসেনের বিয়ে হয়। মারুফ পেশায় ওয়েল্ডিং কারখানার শ্রমিক।

গতকাল দুপুরে মারুফ তাঁর স্ত্রী ইমা বেগমের কাছে ভাত খেতে চান। রোজা পালনরত অবস্থায় ইমা তাঁর স্বামীকে ভাত দিতে রাজি না হলে দুজনের মধ্যে প্রথমে বাগ্‌বিতণ্ডা ও ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে মারুফ ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী ইমার গলা টিপে ধরেন। এতে ইমা অচেতন হয়ে পড়লে মারুফ তাঁকে ঘরের মধ্যে রেখে দেন।

বিকেল থেকে দেখতে না পেরে প্রতিবেশীরা রাত ৮টার দিকে খোঁজ নিতে গিয়ে দেখেন বিছানায় ইমা মৃত অবস্থায় পড়ে আছে। এ ঘটনায় প্রতিবেশীরা মারুফকে আটক করে পিটুনি দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে স্থানীয় লোকজন মারুফকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। এ ব্যাপারে গতকাল রাতেই বাগাতিপাড়া থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য ইমার লাশ নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাগাতিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রহমান বলেন, ক্ষোভ থেকে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। এ ব্যাপারে হত্যা মামলা হয়েছে। মামলায় স্বামী মারুফ হোসেনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।