মেইন ম্যেনু

ভারতকে টেক্কা দিতে এবার মঙ্গলে অভিযান চালালো চীন

ভারতের মহাকাশযান ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে মঙ্গলগ্রহে। প্রথম প্রচেষ্টাতেই ভারতের এই সাফল্য তাক লাগিয়ে দিয়েছে সারা বিশ্বকে। এবার ২০২০-র মধ্যে মঙ্গল অভিযানের পরিকল্পনা করছে চীন। চিনের বিজ্ঞানীদের দাবি, ভারতের থেকেও উন্নতমানের যান মঙ্গলে পাঠাতে সমর্থ হবেন তারা। এই মিশনের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী চিন।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ৫ নভেম্বর পৃথিবীর কক্ষপথ থেকে সফলভাবে উৎক্ষেপণ করা হয় ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো-র মঙ্গলযান। এশিয়া মহাদেশে প্রথম এই অত্যাধুনিক যানটি উৎক্ষেপণ করে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা- ইসরো।

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে সেটি মঙ্গলের মাটিতে অবতরণ করে। প্রথম প্রচেষ্টাতেই লালগ্রহে মহাকাশযান পাঠানোর ক্ষেত্রে বিরল সাফল্য লাভ করে ইসরো।

চীনের মহাকাশ গবেষক ইয়ে পেইজিয়ান জানিয়েছেন, ২০২০ তে মঙ্গলে যান পাঠানোর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। ২০২১ সালে মঙ্গলে যান পৌঁছে দিতে সক্ষম হবেন বলে আশাবাদী তারা।

তিনি আরও জানান, এশিয়াতে মঙ্গল অভিযান এই প্রথম নয়। এর আগেও তা হয়েছে। তবে তাদের দাবি, চীনের মঙ্গল অভিযান ভারত অপেক্ষা অনেক উন্নতমানের হবে। পাঁচ বছর দেরি হলেও, মঙ্গলে যান পাঠানোর ব্যাপারে তারা আত্মবিশ্বাসী।

ভারতের আগে সফল মঙ্গল অভিযান করেছে সোভিয়েত স্পেস প্রোগরাম, নাসা ও ইউরোপ স্পেস এজেন্সি।

চীনা এই যানে থাকবে অরবিটার, ল্যান্ডার এবং রোভার। ল্যান্ডিং-এর সময় ব্যবহৃত হতে পারে প্যারাস্যুট ও রিভার্স থ্রাস্ট ইঞ্জিন। কক্ষপথে ঘুরে পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি লালগ্রহের মাটিতে নামবে রোভার।