মেইন ম্যেনু

ভারতকে মুসলিম রাষ্ট্র বানানোর ঘোষণা বাঙালি ইমামের

ভারতকে মুসলিম রাষ্ট্র বানানোর ঘোষণা দিয়েছেন কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদের শাহি ইমাম মাওলানা নূর-উর রহমান বরকতি। পাকিস্তানের হয়ে সরাসরি লড়াই করার কথাও বলেছেন তিনি। তার এই বক্তব্য নিয়ে ভারতজুড়েই চলছে নানা জল্পনা।

সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে মাওলানা বরকতি বলেন, ভারতকে কেন হিন্দু রাষ্ট্র বানানো হবে? কেন এটা মুসলিম রাষ্ট্র হবে না? ২৫ থেকে ৩০ কোটি মুসলমান আছে এই দেশে। আমাদের পাকিস্তান দেওয়া হোক। আমরা পাকিস্তানের জন্য লড়ব।’

তিনি সরকারকে হুমকি দিয়ে বলেন, ‘যদি এটাকে (ভারত) হিন্দু রাষ্ট্র বানানোর চেষ্টা হয়, বলা হয় আজানসহ আরও অন্য অনেক কিছু বন্ধ হোক, তাহলে আমরা কাউকেই ছাড়ব না। এমনকি মোদিকেও ছাড়া হবে না। শুরু হবে সরাসরি জিহাদ। আমাদের তো এমনিতেই প্রতিনিয়ত জিহাদ করতে হচ্ছে।’

বরকতির এমন মন্তব্যকে ভারতবিরোধী বলে আখ্যা দিয়েছেন ক্ষমতাসীন বিজেপি নেতারা। দলটির পশ্চিমবঙ্গের নেতা ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বলেন, ‘বরকতিকে সংখ্যালঘু বলে মনে করি না। উনি যেসব মন্তব্য করেছেন তাতে তাকে গ্রেপ্তার করা উচিত। বরকতি আসলে একজন অপরাধী। মুসলিম ভোট ব্যাংকের রাজনীতি করতে গিয়েই এদের সুযোগ দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। এর ফল যে খুব ভয়ানক হবে তা উনি বুঝতে পারছেন না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা সবার সমানাধিকারের জন্য লড়ছি। আমাদের দেশ সবার জন্য। কিন্তু এই রাজ্যে সংখ্যালঘুদের তোষণ করা হচ্ছে। এটা করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যা করছেন তা আইনবিরুদ্ধ। দিদির উৎসাহে অপরাধীরা প্রশ্রয় পাচ্ছে। বরকতি সংখ্যালঘু নয়, একজন অপরাধী মাত্র। আজ প্রধানমন্ত্রীও গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার ছেড়েছেন। অথচ বরকতি সেটিকেও চ্যালেঞ্জ করছেন। তাকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করা উচিত।’






মন্তব্য চালু নেই