মেইন ম্যেনু

ভারতে আরো হামলার হুমকি লস্কর-ই-তইবার

ভারতে পঠানকোটের হামলার মতো আরো হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছেন পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবার প্রধান হাফিজ সইদ। বৃহস্পতিবার পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে তাঁর এই ঘোষণার পর উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে দিল্লিতে। পাঠানকোটের পরে নওয়াজ শরিফ সরকার জঙ্গিদের নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে বলে ধারণা করেছিল ভারত। কিন্তু সইদের এই ঘোষণার পরে ভারত আশঙ্কা করছে জঙ্গিদের ওপর শরিফ আবারও নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলছেন।

বৃহস্পতিবার পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের একটি জনসভায় সইদ জানিয়েছেন, ‘কাশ্মীরে গণহত্যা চালিয়ে যাচ্ছে আট লাখ ভারতীয় সেনা। আত্মরক্ষার জন্য তাই কাশ্মীরেরও হামলা চালানোর অধিকার রয়েছে। একটা পঠানকোটে হয়েছে। চাইলে আরও হতে পারে।’ কাশ্মীরের জঙ্গি সংগঠনগুলোর যৌথ মঞ্চ ইউনাইটেড জিহাদ কাউন্সিলের (ইউজেসি) প্রধান সৈয়দ সালাউদ্দিনও ওই বক্তব্যের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

এর আগে পাঠানকোটে হামলার দায় স্বীকার করেছিল ইউজেসি। ভারতীয় গোয়েন্দাদের মতে, নাশকতামূলক কার্যকলাপে যুবকদের নিয়োগ করতে ভারত-বিরোধীে এসব কাজ করছেন সইদ।

সইদের এই ঘোষণার পরে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছেন দিল্লির নিরাপত্তা বাহিনী। মুম্বাই হামলারও অন্যতম অভিযুক্ত এই সইদ। তার সংগঠন লস্কর তথা জামাত-উদ-দাওয়াকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আমেরিকাতেও সইদের বিরুদ্ধে প্রমাণ পেলে ১ কোটি ডলার পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। পাক সরকারও তার বিরুদ্ধে ঘোষণা দিয়েছে যে, মাত-উদ-দাওয়ার কাজকর্ম ‘সন্দেহজনক’।

তবে বেশ কিছুদিন আন্তর্জাতিক চাপে সইদ নিজের গতিবিধি কমিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু গত মাসে ফের একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন এই লস্কর প্রধান। এ বার জনসভাতেও দেখা গেছে তাকে। বিষয়টি নিয়ে তাই কড়া সুরে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। শুক্রবার মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃত সন্ত্রাসবাদী হাফিজ সইদের গতিবিধি আটকানোর দায়িত্ব পাকিস্তানের। তিনি যে প্রকাশ্য জনসভায় এমন বক্তৃতা দিচ্ছেন এটা যথেষ্ট উদ্বেগজনক।’