মেইন ম্যেনু

ভারতে ইংরেজি বলাও অপরাধ!

রাস্তায় দাঁড়িয়ে বন্ধুর সঙ্গে গল্প করছিলেন বছর বাইশের বরুণ গুলাটি। বন্ধু চলে যাওয়ার পর যখন তিনি বাড়িমুখো, তখনই তাঁর উপর চড়াও হয় পাঁচ যুবক। এরপর তাঁকে মারতে শুরু করে তারা। কী অপরাধ ছিল বরুণের? কেবল বন্ধুর সঙ্গে সাবলীল ইংরেজিতে কথা বলছিলেন তিনি।

দুর্ভাগ্যজনক ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির নয়ডাতে। ভারতে ইংরেজি বলাও অপরাধ! ইংরেজিতে কথা বলার জন্য প্রকাশ্য রাস্তায় মার খেতে হল নয়ডার বাসিন্দা এই যুবককে। কনট প্লেসের সামনে এক পাঁচতারা হোটেলে বন্ধু আমনকে ছেড়ে ফিরছিলেন তিনি।

গাড়ি ছিল পার্কিং প্লেসে। সেদিকে হাঁটা দিতেই পাঁচজন তাঁকে ঘিরে ধরে। কেন বন্ধুর সঙ্গে বরুণ সাবলীলভাবে ইংরেজিতে কথা বলছিলেন, বারবার এই প্রশ্ন করতে থাকে তারা। জবাব পাওয়ার আগেই শুরু হয় হাতাহাতি। তারপর তা গিয়ে দাঁড়ায় মারধরে। বেশ গুরুতর জখম হন বরুণ।

ঘটনার পর বরুণকে ফেলে রেখেই পালিয়ে যায় পাঁচজন। তবে ইতিমধ্যেই অপরাধীদের গাড়ির নম্বর লিখে নিয়েছিলেন বরুণ। পুলিশ সেই সূত্র ধরে খুঁজে বের করে অভিযুক্তদের। দু’জন পালিয়ে গেলেও মঙ্গলবার তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, প্রত্যেকেই নেশাগ্রস্ত অবস্থায় ছিল। কী কারণে এমন হামলা করে তারা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। –এবেলা






মন্তব্য চালু নেই