মেইন ম্যেনু

ভারতে ‘গুপ্তচর কবুতর’ নিয়ে পাকিস্তানে হাস্যরস

গুপ্তচরবৃত্তির সন্দেহে ভারতে কবুতর বা পায়রাকে আটক করার খবর পাকিস্তানে জন্ম দিয়েছে ব্যাপক হাস্যরসের। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসমূহে প্রতিবেশী দেশটিকে নিয়ে রীতিমত হাসিতামাশা করছে পাকিস্তানিরা।

বুধবার বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনাটির শুরু হয় পাকিস্তান সীমান্তের কাছে ভারতের একটি গ্রামে এক কিশোর একটি সাদা রংয়ের কবুতর পেলে। যার সঙ্গে ছিল পাকিস্তানের ভাষা উর্দুতে লেখা কিছু বার্তা।

এছাড়া কবুতরটির কয়েকটি পালকে লেখা ছিল কিছু নম্বর। আর তাই কবুতরকে ধরে নেওয়া হয় পুলিশের কাছে। সাবধানী পুলিশ সাথে সাথে কবুতরটি এক্স-রে করার আদেশ দেয়।

এক্স-রে রিপোর্টে যদিও তেমন সন্দেহজনক কিছু পাওয়া যায়নি কিন্তু পুলিশের খাতায় কবুতরটি নাম উঠে গেছে ‘সন্দেহভাজন গুপ্তচর’ হিসেবে। কবুতরটি যেখানে পাওয়া গেছিলো সেটি কাশ্মীরের কাছে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা রাকেশ কৌশল বলেন, “পাকিস্তানী পাখি এখানে আসাটা ব্যতিক্রমী ঘটনা। আগেও আমরা কিছু গুপ্তচর ধরেছি। এলাকাটি স্পর্শকাতর।”

ভারত ও পাকিস্তান প্রায়শই একে অন্যের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ করে থাকে। কিন্তু গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে পাখি আটকের ঘটনা সীমান্তের দুধারেই বিনোদনের জন্ম দিয়েছে। পাকিস্তানে এ ঘটনার ব্যঙ্গ করে অনেক ছবি তৈরি করে দেয়া হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম সমূহে।