মেইন ম্যেনু

ভারতে পথদুর্ঘটনায় আহতকে হাসপাতালে পৌঁছে দিলেই মিলবে আর্থিক পুরস্কার

সম্প্রতি পথদুর্ঘটনায় মৃত্যুর ঘটনা এড়াতে দিল্লি সরকার একটি পদক্ষেপ করেছে। সেখানে সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, কোনও ব্যক্তি যদি দুর্ঘটনায় আহত কোনও ব্যক্তিকে বাঁচায়, তবে তাকে পুরষ্কৃত করবে সরকার। ওই ব্যক্তিকে দেওয়া হবে কড়কড়ে ২০০০ টাকার নোট, সঙ্গে মিলবে সার্টিফিকেটও।

দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসৌদিয়া জানিয়েছেন, দুর্ঘটনায় আহত মরণাপন্ন ব্যক্তিদের হাসপাতালে পৌঁছে দিলেই মিলবে এই পুরস্কার। জরুরি অবস্থায় আরও মানুষ যাতে ভয় না পেয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়, সেই কারণেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

কিছুদিন আগেই দিল্লির সুভাষনগরে একটি পথ দুর্ঘটনায় এক ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়। আইনি ঝামেলায় জড়িয়ে যাওয়ার ভয়ে কেউ তাঁর দিকে সাহায্যের হাতটুকুও বাড়িয়ে দেয়নি। রাস্তায় পড়ে থেকেই মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। এর পরেই নড়েচড়ে বসে দিল্লি সরকার। ২০১৬ সালে দিল্লির অটো চালকদের ‘বেসিক লাইফ সাপোর্ট’ ট্রেনিংও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তাতে সমস্যা মেটেনি। এবার এই পদক্ষেপে দুর্ঘটনায় মৃত্যু অনেকটাই কমেছে বলে মনে করছে সরকার।

শুধু দিল্লিই নয়, দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের যাতে নির্ভয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, কিছুদিন আগে সেই সংক্রান্ত একটি ঘোষণাও করে দেশের শীর্ষ আদালত। সেখানে বলা হয়, দুর্ঘটনায় আহত মরণাপন্ন ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করতে গেলে উদ্ধারকারী ব্যক্তির কোনওরকম পরিচয়পত্র জমা না দিলেও চলবে। তবে কেজরিবাল সরকারের এই নয়া উদ্যোগে সমস্যা অনেকটাই মিটবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক বন্ধু অরবিন্দ কেজরিবাল পথ দেখালেন। এবার সেই পথেই কি হাঁটবে পশ্চিমবঙ্গ? সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছে বাংলার মানুষ।