মেইন ম্যেনু

ভারতে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে পুলিশসহ নিহত ২২

ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যে অবৈধ জমি দখলদার ও জনতার সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এ পর্যন্ত মারা গেছে কমপক্ষে ২২ জন। উত্তরপ্রদেশের মথুরা এলাকার ওই সংঘর্ষে নিহতদের মধ্যে দুই পুলিশ কর্মকর্তাও রয়েছে। এরা হলেন স্টেশন হাউজ অফিসার (এসএইচও) সন্তোষকুমার যাদব এবং পুলিশ সুপার (এসপি) মুকুল দ্বিবেদী।

সংঘর্ষে আরো পাঁচ পুলিশকর্মীসহ মোট ৪০ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। এর আগে দুই বছর ধরে অবৈধভাবে দখল হয়ে থাকা একটি পার্ক উদ্ধারে গত বৃহস্পতিবার অভিযান চালায় পুলিশ। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দখলদাররা জনগণকে সঙ্গে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এদিকে ঘটনা তদন্তে নির্দেশ দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব। রাজ্য পুলিশের কর্মকর্তা দলজিত চৌধুরি বলেন, পার্ক পুনরুদ্ধারে পুলিশের অভিযানের সময় প্রায় ৩ হাজার সেখানে লোক জড়ো হয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। কয়েকজন আন্দোলনকারী পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা জবাব দেয়।

অখিলেশ যাদব জানান, পুলিশের ছোড়া গুলিতে বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এ পর্যন্ত তিনশোরও বেশি জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, হামলার পুরোভাগে ছিলেন আন্দোলনকারীদের নেতা রামবৃক্ষ যাদব এবং তার নিরাপত্তারক্ষী চন্দন গওর। সমর্থকদের সহযোগিতায় তারা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়েছে। তাদের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

রামবৃক্ষ গত দুই বছর আগে একটি ধর্মীয় সংগঠন থেকে আলাদা হয়ে ‘আজাদ ভারত বিধিক বিচারক ক্রান্তি সত্যাগ্রাহী’ নামের একটি সংগঠন খোলেন। ধর্মের নামে তিনি এবং তার সমর্থকরা মাথুরার ২৮০ একরের ওই সরকারি জমি জবরদখল করে। আদালতের নির্দেশ সত্ত্বেও ওই জমি ছাড়তে নারাজ ছিলেন রামবৃক্ষ। তার পরই আদালতের নির্দেশ পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ।