মেইন ম্যেনু

ভারতে যেতে আপত্তি নেই পাকিস্তানের

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপিং হওয়ার পর একটা ম্যাচের দিকে চোখ আটকে গিয়েছিল ক্রিকেটভক্তদের। তবে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে সন্দেহও প্রকাশ করেছিলেন অনেকে। নিরাপত্তাজনিত কারণে পাকিস্তান শেষ পর্যন্ত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের দেশে যাবে কি না, তা নিয়েই ছিল সংশয়। সব সন্দেহ-সংশয়ের অবসান হয়েছে অবশেষে। আফ্রিদির দলকে ভারতে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে পাকিস্তান সরকার।

বেশ কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার কারণে ভারত-পাকিস্তান সম্পর্কের টানাপড়েন চলছে ইদানীং। ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন শিবসেনা হুমকি দেওয়ায় গত অক্টোবরে মুম্বাই ও পুনেতে অনুষ্ঠান করতে পারেননি পাকিস্তানের কিংবদন্তি গজলশিল্পী গুলাম আলী। সেই মাসেই ভারত ও পাকিস্তানের শীর্ষ পর্যায়ের ক্রিকেট কর্মকর্তাদের বৈঠকও বানচাল করে দিয়েছিল শিবসেনার বেশ কিছু উগ্র সমর্থক।

এসব কারণেই কিছু দিন আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান। বৃহস্পতিবার অবশ্য তিনিই সুখবরটা দিয়েছেন ক্রিকেটপ্রেমীদের, ‘আমি অত্যন্ত আনন্দিত যে আমাদের সরকার আমাদের দলকে ভারত সফরের অনুমতি দিয়েছে। আমরা পাকিস্তান ক্রিকেট দল ভারতে থাকার সময় আইসিসিকে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছি। আশা করি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের খেলা দেখতে ভারতে যেতে আগ্রহী পাকিস্তানি ভক্তরাও ভিসা আর অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাবেন।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ষষ্ঠ আসরে পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচ ১৬ মার্চ, বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা দলের বিপক্ষে। তার তিন দিন পর হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর ‘হাই ভোল্টেজ’ ম্যাচ। গ্রুপ পর্বের বাকি দুই ম্যাচ ২২ মার্চ নিউজিল্যান্ড আর ২৫ মার্চ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলবে আফ্রিদির দল।