মেইন ম্যেনু

ভারতে শিশু পাচারের শীর্ষে পশ্চিমবঙ্গ

ভারতে যত কিশোর-কিশোরী প্রতিবছর হারিয়ে যায় বা অপহৃত হয়, তার সংখ্যা পশ্চিমবঙ্গেই সব থেকে বেশি। দেশটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘চাইল্ড রাইটস অ্যান্ড ইউ (ক্রাই) এর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। খবর বিবিসি।

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় আর জাতীয় অপরাধ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য বিশ্লেষণ করে ক্রাই জানায়, হারিয়ে যাওয়া শিশুদের মধ্যে প্রায় ৭০ শতাংশই কিশোরী। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পরিবারের লোকেরাই চাকরীর আশায় তাদের কাজে পাঠায়, আর সেখানেই পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে তারা।

সংগঠনটির মতে, ২০১৪ সালে পশ্চিমবঙ্গ থেকে সাড়ে ১৪ হাজারেরও বেশি শিশু-কিশোর নিখোঁজ হয়েছে।ওই একই বছরে অপহৃত হয়েছিল ২৩৫১ শিশু-কিশোর। পূর্ববর্তী ৫ বছরে অপহরণের সংখ্যা ৬০৮ শতাংশ বেড়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের পরেই রয়েছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি আর অন্ধ্র প্রদেশ।

পশ্চিমবঙ্গ থেকে যত শিশু-কিশোর ২০১৪ সালে হারিয়ে গেছে, তাদের প্রায় ৭০ শতাংশই কিশোরী। এদের ৪০ শতাংশকে খুঁজেই পাওয়া যায়নি। এদের বেশির ভাগই পাচার হয়ে গেছে বলে আশঙ্কা করা হয়।

ক্রাইয়ের পূর্বাঞ্চলীয় কর্মকর্তা অতীন্দ্র নাথ দাস বলেন, হারিয়ে যাওয়া শিশু-কিশোরীদের একটা বড় অংশ নিঃসন্দেহে পাচার হয়ে যায়। নির্মাণ শিল্প, ভিক্ষাবৃত্তি, পার্লার, গৃহকর্ম প্রভৃতি ক্ষেত্রে যেমন এদের ব্যবহার করা হয়। একটা বড় অংশকে যৌনপল্লীগুলিতে বিক্রি করে দেওয়া হয়। সংখ্যাটা যথেষ্ট উদ্বেগজনক।