মেইন ম্যেনু

ভারতে ৭ বাংলাদেশি ‘জিহাদি’ গ্রেপ্তার

‘জিহাদি’ সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে বাংলাদেশভিত্তিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জামাত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) সাত সদস্যকে আটক করা হয়েছে পশ্চিম আসামের চিরাং জেলায়।

বুধবার রাতে স্থানীয় পুলিশ আটক করেন তাদের। স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা আইএএনএস জানিয়েছে, বুধবার রাতে আটক হওয়াদের মধ্যে দুজন মসজিদের ইমাম। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তারা দলের সদস্যদের শারীরিক ও অস্ত্র প্রশিক্ষণের জন্য ক্যাম্প গড়ে তুলেছেন। আটক হওয়া সাত জন হলেন জয়নাল আবেদিন (৩২), রেজ্জাক আলী (২১), সোলেমান আলী (২৮), দিদার আলী (২৩), মো. নুরুল ইসলাম (২৭), রফিকুল ইসলাম ও উখিলুদ্দিন (৩৩)।

পুলিশ জানিয়েছে, এই সাত জনের মধ্যে জয়নাল আবেদিন ও রেজ্জাক আলী আমগুরি মসজিদের ইমাম। এর আগে ১৬ই এপ্রিল চিরাং ও কোকরাজহরের পুলিশ ‘জিহাদি’ অভিযোগে চার জনকে আটক করে। তাদের বিরুদ্ধেও চিরাংয়ে প্রশিক্ষণ ক্যাম্প স্থাপনের অভিযোগ রয়েছে।

বোডোল্যান্ড টেরিটোরিয়াল এরিয়া ডিস্ট্রিক্টসের পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল এলআর বিশনই বলেন, ‘আগের আটক চার জিহাদিকে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে আমরা এই সাত জনের কথা জানতে পেরেছি।

বুধবার রাতে এই সাত জনকে আটকের মাধ্যমে এই প্রদেশে এখন পর্যন্ত মোট আটকের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৯। এরা সবাই বাংলাদেশের জেএমবির অধীনে আসামে কার্যক্রম পরিচালন করে যাচ্ছিল।’ বিশনই বলেন, তারা শারীরিক প্রশিক্ষণের জন্য ক্যাম্প গড়ে তুলেছিল এবং পরে অস্ত্র প্রশিক্ষণও চালুর পরিকল্পনা ছিল তাদের। বিশনই বলেন, ‘প্রশিক্ষণ দেয়ার জন্য দুই জন পশ্চিমবঙ্গ থেকে এসেছিলেন এখানে। আমরা তাদের নাম ও ঠিকানা পেয়েছি এবং পশ্চিমবঙ্গের পুলিশের সঙ্গেও আমাদের যোগাযোগ হয়েছে তাদের আটকের বিষয়ে।’