মেইন ম্যেনু

ভারত আক্রান্ত হলে পাশে থাকবে বাংলাদেশ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ১৯৭১ সালে ভারত বাংলাদেশকে সহযোগিতা করেছে। তাদের সহায়তায় বাংলাদেশ একটি স্বাধীন ভূখণ্ড পেয়েছে। বর্তমানে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের মোকাবিলায়ও ভারত বাংলাদেশকে সহযোগিতা দিয়ে আসছে। বাংলাদেশ যখন যে সহযোগিতা চায়, ভারত তা দেয়। তাই ভারত যদি কোনোভাবে আক্রান্ত হয়, তাহলে বাংলাদেশ তাদের পাশে থাকবে।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে গণমাধ্যম কেন্দ্রে ‘বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক’ বিষয়ে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) সংলাপ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান যদি ভারতে আক্রমণ চালায়, তাহলে বাংলাদেশ ভারতের পাশে থাকবে। কারণ ভারত সফরের সময় আমি তাদেরকে এ আশ্বাসই দিয়েছি।

এ সময় তিনি বলেন, ‘কলেজছাত্রী খাদিজার উপর হামলাকারী যেই হোক তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কাউকে এ ব্যাপারে ছাড় দেওয়া হবে না।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গুলশানের হলি আর্টিসান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় আটক কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাহমিদ হাসিব খানকে জামিন দিয়েছেন আদালত। তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট কোনও তথ্য না পাওয়ায় তাকে জামিন দেওয়া হয়েছে। তবে যেকোনো প্রয়োজনে তাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে।

সীমান্তে হত্যা বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, সীমান্তে বিএসএফ কর্তৃক বাংলাদেশি হত্যা কমিয়ে আনতে সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে।

বিএসআরএফের সভাপতি শ্যামল সরকারের সভাপতিত্বে সংলাপে সংস্থাটির প্রধান তথ্য কর্মকর্তা এ কে এম শামীম চৌধুরী, বিএসআরএফের সাধারণ সম্পাদক ছিদ্দিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।