মেইন ম্যেনু

ভারত চালু করতে যাচ্ছে ‘গতিমান এক্সপ্রেস’!

ধরুন আপনি ট্রেনে বসে আছেন। আর একজন নারী সেবিকা এসে একটি গোলাপ দিল। তখন ব্রাকগ্রাউন্ডে বাজছে হালকা সুরের গান। কেমন হবে আপনার অনুভূতি? এরকমই হতে যাচ্ছে ভারতে।

ভারতের রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ শিগগিরই এই পদক্ষেপ সত্যি করতে যাচ্ছে। তারা দিল্লি-আগ্রা রুটে ‘গতিমান এক্সপ্রেসে’ চালু করতে যাচ্ছে। আর সেখানে থাকবে বিমানবালার মতো সেবাদানকারী। ট্রেনটির তি হবে ঘণ্টায় ১৬০ কিলোমিটার।

আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি বার্ষিক রেল বাজেটের ঘোষণার দিন রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু এই বিশেষ ট্রেনটির বিষয়ে ঘোষণা দেবেন।

ট্রেনটিতে থাকবে উচ্চ-ক্ষমতাসম্পন্ন জরুরি গতিরোধ ব্যবস্থা, অটোমেটিক ফায়ার অ্যালার্ম, জিপিএসভিত্তিক যাত্রীদের তথ্যসংগ্রহ ব্যবস্থা ও কোচে স্লাইডিং ডোর। এছাড়াও সেখানে টিভি দেখার সুযোগ থাকবে।

রেলওয়ে মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, বিমানের সেবার সাথে সামঞ্জস্য করে আমরা গতিমানে সর্বোচ্চ সেবা দেয়ার চেষ্টা করেছি। বিমানবালার মতো এখানে সুবিধা দেয়া হবে। তাছাা বিমানের মতো করেই খাদ্যাদি পরিবেশন করা হবে।

শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত চেয়ার কারের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৯০ রুপি। এক্সিকিউটিভ ক্লাসে চলাচল করতে গেলে জনপ্রতি ভাড়া পড়বে এক হাজার ৩৬৫ রুপি।

পাঁচ হাজার ৪০০ হর্স পাওয়ার ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিনের ট্রেনটিতে থাকবে ১২টি কোচ। ২০০ কিলোমিটার দূরত্ব যেতে গতিমান এক্সপ্রেসের সময় লাগবে ১০৫ মিনিট। ভারতের রেল কর্তৃপক্ষ কানপুর-দিল্লি, চন্দ্রিগড়-দিল্লি, হায়দ্রাবাদ-চেন্নাই, নাগপুর-বিলাসপুর, গোয়া-মুম্বাই ও নাগপুর-সিকান্দারবাদ রুটসহ নয়টি রুটে এই ধরনের সেবা চালু করার পরিকল্পনা করছে।