মেইন ম্যেনু

ভারত থেকে ৫০ লাখ টন জ্বালানি তেল কিনবে সরকার

ভারত থেকে সাড়ে ৫০ লাখ টন জ্বালানি তেল কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। ১৫ বছর মেয়াদে এ তেল কিনবে সরকার। বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ আনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠকে প্রতি ব্যারেল জ্বালানি তেলের প্রিমিয়াম নির্ধারণ করা হয়েছে পাঁচ দশমিক ৯২ ডলার। এ হিসাবে মোট ব্যয় হবে এক হাজার ৮০৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বিদেশে থাকায় তার অনুপস্থিতিতে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে অনুমোদিত ক্রয় প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান।

তিনি বলেন, ইন্দো-বাংলা ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইনের মাধ্যমে ভারতের নুমালিগড় রিফাইনারি লিমিটেডের শিলিগুড়িতে অবস্থিত মার্কেটিং টার্মিনাল থেকে বাংলাদেশের পার্বতীপুরে জ্বালানি তেল সরবরাহের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। ১৫ বছর মেয়াদে সাড়ে ৫০ লাখ টন জ্বালনি তেল আমদানির প্রিমিয়াম নির্ধারণের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রতি ব্যারেল জ্বালানি তেলের প্রিমিয়াম নির্ধারণ করা হয়েছে পাঁচ দশমিক ৯২ ডলার। এ হিসেবে মোট ব্যয় হবে এক হাজার ৮০৮ কোটি ৪২ লাখ টাকা।

ভারতের শিলিগুড়ি থেকে বাংলাদেশের পার্বতীপুর পর্যন্ত প্রায় ১৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ পাইপলাইন স্থাপন হচ্ছে। ২০১৫ সালে এ নিয়ে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন এবং নুমালীগড় রিফাইনারি লিমিটেডের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি হয়।

এছাড়া ‘রূপকল্প- ২০২১’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানি দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন, ২০১৩ এর আওতায় আরও ছয়টি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এসব প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ৪৮৬ কোটি টাকা।

বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের মাধ্যমিক স্তরের (বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন), দাখিল, এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনাল স্তরের বিনামূল্যে ১০২টি লটে এক কোটি ৯৪ লাখ ৬৮ হাজার ৬৯১টি পাঠ্যপুস্তক কাগজসহ মুদ্রণ, বাঁধাই ও সরবরাহ কাজের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এজন্য ব্যয় হবে ১১২ কোটি ৮৯ লাখ ২৮ হাজার টাকা।






মন্তব্য চালু নেই