মেইন ম্যেনু

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের টিকিটের জন্য হাহাকার

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা, রিয়াল মাদ্রিদ-বার্সেলোনা কিংবা চেলসি-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ফুটবলে এসব বড় বড় ক্লাবের ম্যাচ মানেই আলাদা রোমাঞ্চ। ভক্তরা নাওয়া খাওয়া ছেড়ে স্টেডিয়াম বা টিভির সামনে বসে পড়েন। ফুটবলের মত এতোটা জনপ্রিয় নয় ক্রিকেট। তারপরও ম্যাচটা যদি হয় ভারত-পাকিস্তান, তাহলে তো কথাই নেই। উত্তেজনার বারুদ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়বে। এশিয়া কাপের সুবাধে আবারো লড়াইয়ে নামছে চির প্রতিদ্বন্দ্বী এ দুই দল। শনিবার মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় মোকাবেলা করবে আফ্রিদি-ধোনিরা।

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টির সবচেয়ে আকর্ষণীয় এই ম্যাচটি মাঠে বসে দেখার জন্য উন্মুখ সবাই। এরই ধারাবাহিকতায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের সামনে লম্বা লাইন। সবারই প্রত্যাশা ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের কাঙ্ক্ষিত টিকিট। কিন্তু ১১টা ১৫ মিনিটে, হঠাৎ বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো ঘোষণা আসলো টিকেট নেই। প্রায় সাড়ে ৩ হাজার টিকিটপ্রার্থীদের মধ্যে টিকিট পান ৫শ` জনের মত। শুরু হয় জনরোষ। সেই ক্ষোভ থেকে যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু না ঘটে সেজন্য ব্যবস্থা নেয় আইন শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী।

ব্যাংক কর্মকর্তাদের ব্যাখ্যা, অন্যান্য ম্যাচের চেয়ে টিকিট সরবরাহ ছিল অনেক কম, আর বিপরীতে চাহিদা ছিল বেশি। তবে শনিবার ম্যাচের আগে মিরপুরের ইনডোরে টিকিট পাওয়া যাবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।