মেইন ম্যেনু

ভালবাসা একেই বলে: দাড়িওয়ালা কনে, গলদা চিংড়ি বর!

একজন পুরুষ ও একজন নারী যাদের ডাকনাম ‘ দাড়িওয়ালা মহিলা’ এবং ‘গলদা চিংড়ি পুরুষ’, তারা একে-অপরের প্রেমে পতিত হয়েছে এবং এটা ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর জন্য সবচেয়ে নিখুঁত গল্প।

৩০ বছর বয়সী জেসসা অলমস্টেড এবং ৩৯ বছর বয়সী গ্রাডি স্টিলস থ্রি একে-অপরের সাথে ভেনিস বিচে কর্মরত থাকা অবস্থায় পরিচিত হন। জেসসা তার মুখের চুলের জন্য অনেক বিখ্যাত, সেখানে গ্রাডির একটি শারিরিক সমস্যা রয়েছে যা ectrodactyly নামে পরিচিত। এই সমস্যার কারণে তার হাত এবং পায়ের থাবার চেহারা সকলের চেয়ে আলাদা। এতে তার হাত ও পা চিংড়ির ন্যায় দেখা যায়।

তারা তাদের সম্পর্কের কথা প্রথম দিকে লুকিয়ে রাখলেও সম্প্রতি তারা সকলের সামনে নিজেদের ভালবাসার কথা জানান দিয়েছেন। জেসসা বলেন, ‘আমাদের নিয়ে লোকেরা কি বলছেন তা আমাদের জানার কোন বিষয় নয়। সে সুন্দর এবং আমি ঝাপসা।’

‘তবে মানুষ যদি আমাদের সম্পর্কে আলাপ না করে থাকেন, তাহলে আমি অবাক হবো।’

ভেনিস বিচ ফ্রেক শো’য়ের মালিক টড রে বলেন, তিনি খুব আনন্দিত যে এই দম্পতি ভালবাসা খুঁজে পেয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি এটা ভালবাসি, তারা একে-অপরের সাথে খুব ভাল আছেন। দুই বন্ধুর মাঝে প্রেম দেখতে পাওয়া অবশ্যই সবসময় ভাল।’

‘সবাই জেসসা এবং গ্রাডিকে ভালবাসেন, আর যারা তাদের রোমান্সের সম্পর্কে জানতে পেরেছেন তারাও অনেক খুশি।’

‘আমরা আশা করি তাদের ভালবাসা এবং সুখ যেন চিরকাল স্থায়ী হয়।’-সুত্র: মেট্রো।