মেইন ম্যেনু

ভিনগ্রহীদের উদ্দেশ্যে নাসার বাংলায় অডিও বার্তা!

নাসার বিজ্ঞানীরা বার বার নতুন নতুন বার্তা দিয়ে বিচলিত করছে বিশ্ববাসীকে। এবার এমনি একটি বার্তা দিলেন যা শুনলে আপনি বিচলিত না হয়ে পারবেন না। ১৯৭৭ সালে ভিনগ্রহীদের উদ্দেশ্যে বাংলা ভাষায় একটি সাঙ্কেতিক বার্তা পাঠিয়েছিলেন নাসার গবেষকেরা। তাহলে প্রশ্ন এলিয়েন বা ভিন গ্রহবাসীরা কি বাঙালি? বিজ্ঞানীরা এখনও হয়তো তাদের খুঁজে পাননি, কিন্তু দীর্ঘদিন ধরেই বুদ্ধিমান ভিন গ্রহবাসীর খোঁজ চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। সে লক্ষ্যেই বিভিন্ন দেশের মানুষের ভাষায় এলিয়েনদের সম্বোধন করে মহাকাশে অডিও বার্তা পাঠিয়েছিলেন গবেষকেরা। সেই সব ভাষার তালিকায় স্থান পেয়েছিল বাংলা ভাষাও৷

তবে ১৯৭৭ সালে মাহাকাশে পাঠানো ভয়েজার মাহকাশযানে নাসার গবেষকেরা যে বার্তাগুলো পাঠিয়েছিল সেবার্তাগুলোকে ‘গোল্ডেন রেকর্ডস’ বলা হচ্ছে। বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষ ও সংস্কৃতি এবং বিভিন্ন যুগ থেকে নির্বাচিত সংগীতের মাধ্যমে নির্বাচিত ৫৫টি ভাষায় ভিনগ্রহের বুদ্ধিমান জীবের জন্য অডিও বার্তা হিসেবে রেকর্ড করা হয়। এবং এর মধ্যে বাংলা ভাষাটি স্তান পায় তবে তার পাশাপাশি হিন্দি, মারাঠি ভাষাও রয়েছে।

বাংলায় যে বার্তাটি রেকর্ড করে মাহকাশে পাঠানো হয়েছিল তাতে বলা হয়ছে, ‘নমস্কার, বিশ্বে শান্তি হোক’। এ ধরনের বার্তা ছাড়াও পৃথিবী থেকে বৃষ্টির শব্দ, মানুষের হৃৎস্পন্দন ও পাথুরে যন্ত্রপাতির ব্যবহারের শব্দ রেকর্ড করেও ভয়েজারে করে পাঠানো হয়েছিল।

১৯৭৭ সালের ২০ আগস্ট ভয়েজার টু ও ৫ সেপ্টেম্বরে ভয়েজার ওয়ান উৎক্ষেপণ করে নাসা। এই দুটি মহাকাশযানেই গোল্ডেন রেকর্ড রাখা আছে। দুটি মহাকাশযানই এখন পৃথিবী থেকে বহুদূরে, মানুষের তৈরি অন্য কোনো বস্তু যেখানে কোন দিন যেতে পারেনি। পৃথিবী থেকে প্রায় দুই হাজার ২০০ কোটি মাইল দূরে ভয়েজার টু এবং ভয়েজার ওয়ানের উপস্থিতি বলে জানিয়েছে নাসা।