মেইন ম্যেনু

ভুলেও মুখে লাগাবেন না এ গুলো !

বর্তমান বাজারে ফর্সা করার ক্রীমের অভাব নেই বললেই চলে। পাল্লা দিয়ে এই সব প্রসাধনী বাজার জাত করা হচ্ছে। আমরা বুঝে-না বুঝে হরহামিসেই ব্যবহার করছি। মুখের ত্বক উজ্জ্বল করতে এটা মাখুন, সেটা মাখুন প্রায়ই শুনতে থাকি আমরা।

সুন্দর ত্বক পেতে কী কী মাখবেন তার থেকেও অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ত্বক ভাল রাখতে কোন কোন জিনিস থেকে দূরে থাকবেন। জেনে নিন এমনই কিছু জিনিস যা মুখের ত্বক থেকে দূরে রাখাই ভাল।

১. ডিওডরান্ট:
সাবধান! ডিওডরান্ট স্প্রে করার সময় মুখ থেকে দূরে রাখুন। অনেকেই গরমে মেক আপ গলে যাওয়া আটকাতে মুখে ডিওডরান্ট স্প্রে করেন। এতে ত্বকের রোমকূপ বন্ধ হয়ে যাবে। রোলঅন ডিও কন্টুওরিং করতে ব্যবহার করা থেকেও দূরে থাকুন।

২. বেকিং সোডা:
অনেকেই বেকিং সোডা স্ক্রাবার হিসেবে ব্যবহার করেন। এতে ত্বকের পিএইচ ব্যালান্স নষ্ট হয়।

৩. শ্যাম্পু:
শ্যাম্পু করার সময় খেয়াল রাখুন ফেনা যেন মাথার পিছনের দিকে পড়ে। মুখের ত্বকে লাগলে ত্বক রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

৪. হেয়ার কালার:
চুলে রং করার সময় অনেকেরই মুখের ত্বকেও রং লেগে যায়। সাবধান। এর মধ্যে থাকা রাসায়নিক ত্বকের ক্ষতি করতে পারে।

৫. বডি লোশন:
বডি লোশন মুখে মাখার লোশনের থেকে অনেক ভারী হয়। এতে অ্যাকনের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৬. মেয়োনিজ:
চুলের জন্য ভাল হলেও মেয়োনিজে থাকা অ্যাসিড ত্বকের রোমকূপ বন্ধ করে দেয়।

৭. হেয়ার স্প্রে ও হেয়ার সিরাম:
চুল ঠিকঠাক সেট করতে অনেকেই হেয়ার স্প্রে, হেয়ার সিরাম ব্যবহার করেন। এই সব প্রডাক্ট সব সময় পিছন থেকে স্প্রে করুন। এর মধ্যে থাকা অ্যালকোহল ও ল্যাকার মুখের ত্বক শুষ্ক করে দেয়।

৮. নেল পলিশ:
নেল পলিশ পরার সময় সতর্ক থাকুন কোনও ভাবেই যেন মুখে না লেগে যায়। এর অ্যাক্রাইলিক মলিকিউল ত্বক রুক্ষ করে দেবে। কখনও মুখে পেইন্ট করতে হলেও নেল পলিশ ব্যবহার করবেন না।